নিরাপদ নয় আইফোনও

নিউজনাউ ডেস্ক: অ্যাপল কোম্পানি তাদের সুরক্ষা নীতি নিয়ে বরাবরই আত্মবিশ্বাসী। তবে পেগাসাসকাণ্ডের পর পাল্টে গেছে সেই চিত্র। ইসরায়েলের এনএসও গ্রুপের তৈরি স্পাইওয়্যার নিরাপত্তাবলয় ভেঙে এই আইফোনগুলোতে আড়ি ও নজর রাখছে ব্যবহারকারীর তথ্যে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের গবেষণায় বলা হয়েছে, আইফোনের সর্বশেষ মডেলের সর্বশেষ সংস্করণের সফটওয়্যার ইনস্টল করা থাকলেও তাতে আড়ি পাততে পেরেছে এনএসও গ্রুপের পেগাসাস স্পাইওয়্যার।

নিরাপত্তা গবেষকেরা কিন্তু অনেক দিন ধরেই এমন পরিস্থিতি নিয়ে সতর্ক করে আসছেন। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সির সাবেক কর্মী প্যাট্রিক ওয়ার্ডল বলেন, অ্যাপলের ঔদ্ধত্যের সঙ্গে আর কিছুর তুলনা হয় না। তারা মনে করে তাঁদের পথটাই সেরা।

বেশির ভাগ বিশেষজ্ঞই মনে করেন আইফোনের বার্তা আদান–প্রদানের সেবা আইমেসেজটি সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ সুবিধা। তবে চলতি বছরের শুরুতে অ্যাপল বলেছিল, তারা আইমেসেজকে আরও সুরক্ষিত করেছে। এর জন্য অ্যাপল ‘ব্লাস্টডোর’ নামের সুবিধা চালু করেছে, যা আইফোনে আগত সন্দেহজনক বার্তাগুলো স্ক্যান করে দেখে। এত কিছুর পরেও আইফোনকে হ্যাকারদের হাট থেকে রক্ষা করা গেল না।

ওয়ার্ডলের মতে, অ্যাপলের নিরাপত্তা সুবিধা দুই পাশে ধারওয়ালা তরবারির মতো। কারণ, আইমেসেজে এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন সুবিধা আছে। অর্থাৎ কার আইফোন থেকে স্পাইওয়্যারটি ছড়াল, তা জানাও সম্ভব নয়।

অ্যামনেস্টির সিকিউরিটি ল্যাবের প্রধান ক্লডিও গার্নিয়েরি বলেছেন, এনএসওর স্পাইওয়্যার যে আইওএসের (আইফোনের সফটওয়্যার) সর্বশেষ সংস্করণগুলোতে প্রবেশ করতে পারে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই। তবে ক্লডিওর মতে, একধাপ এগিয়ে থাকা হাজারো হ্যাকারের সঙ্গে পেরে উঠছে না অ্যাপল।

নিউজনাউ/আরবি/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: