তাবিজে কাজ না করায় নারী কবিরাজকে কুপিয়ে হত্যা, আহত ৩

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে তাবিজে কাজ না হওয়ায় ফাতেমা বেগম (৪৬) নামের এক নারীকে কুপিয়ে হত্যা করেছেন এহসান নামের এক যুবক। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন ফাতেমার শিশু কন্যা সহ তিন নারী। ঘটনার পরপরই ওই যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (১২ জুলাই) সকাল নয়টার দিকে বাঁশখালী উপজেলার গন্ডমারা ইউনিয়নের শীলকুপ দাস পাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি শফিউল কবির নিউজনাউকে বলেন, ‘ঘটনার পরপরই এলাকা থেকে ঘাতক যুবক এহসানকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ফাতেমার দেয়া তাবিজে কাজ না হওয়ায় সে তাকে কুপিয়েছে বলে জানায়।’

স্থানীয়রা জানান, নিহত ফাতেমা বেগম ওই এলাকার মোস্তাক আহমেদ সিকদারের স্ত্রী। এলাকায় তিনি কবিরাজি চিকিৎসা করাতেন। ঘটনার সময় তাকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন তার শিশু কন্যা বৃষ্টি (৯) ও রাবেয়া বেগম (৪০), জান্নাতুল ফেরদৌস (২২) নামে আরো দুই মহিলা। আহতদের চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক এএসআই শীলব্রত বড়ুয়া নিউজনাউকে বলেন, ‘সোমবার সকালে ওই যুবক ডাব খাওয়ার কথা বলে ফাতেমার ঘরে ঢুকে এলোপাতাড়ি তাকে কোপাতে থাকে। তিনজন প্রতিবেশী ফাতেমাকে উদ্ধারে এগিয়ে এলে তাদেরও কুপিয়ে আহত করেন ওই যুবক। পরে তাদের সবাইকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক ফাতেমাকে মৃত ঘোষণা করেন।’

নিহত ফাতেমার মরদেহ চমেক হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানান শীলব্রত বড়ুয়া।

নিউজনাউ/এফএস/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: