চট্টগ্রামে কাউন্সিলর হাসনীর মারধরের শিকার হয়ে ৯৯৯-এ কল

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম নগরের কোতোয়ালী থানার ঘাটফরহাদবেগ এলাকায় কাউন্সিলর চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনীর বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ করেছেন এক এলাকাবাসী। পরে ভুক্তভোগী মো. নাছির উদ্দিন জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯-এ কল করে করলে পুলিশ গিয়ে ঘটনা নিয়ন্ত্রণে আনে।

শুক্রবার ( ৯ জুলাই) রাত দশটা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত দফায় দফায় ঘাটফরহাদবেগ এলাকায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

মারধরের শিকার হওয়া মো. নাছির রাঙ্গুনিয়ারা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোনাফ হাজীর ছেলে। নাছির নিউজনাউকে বলেন, ২০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাসনী তাকে চড় থাপ্পড় মেরে তার বাবাকেও অপমান করেছেন। এসময় হাসনীর সাথে তার সমর্থকরাও তাদের উপর হামলা চালায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মোনাফ হাজী এলাকায় হাজী চেয়ারম্যান হিসেবে পরিচিত। তার ছয়তলা একটি নির্মাণাধীন ভবনের কাজ চলছিল। ভবনের নির্মাণ কাজের জন্য একটি ট্রাক রাত ৮টার পর এলাকায় ঢুকলে ঝামেলার শুরু হয়। সে সময় এলাকায় একটি বাড়িতে মাছ ফাতেহা অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। এসময় আগে থেকেই দাড়িয়ে থাকা ট্রাকটির কারণে নাছিরের গাড়ি যেতে সমস্যা হচ্ছিল। এতে ক্ষিপ্ত হন তার অনুসারী কাউন্সিলর হাসনী এবং তার সমর্থকরা। স্থানীয়রা জানান এলাকায় রাত বারোটার আগে ট্রাক ঢোকা নিষেধ। কিন্তু এই ট্রাকটি আগে ঢুকলে সমস্যা তৈরি হয়।

ঘটনার সত্যতা শিকার করে কোতোয়ালী থানার ওসি নেজাম উদ্দীন নিউজনাউকে বলেন, ঘাটফরহাদবেদ এলাকায় একটি বাসায় মাছফাতেহা ছিল। সেখানে সাবেক মেয়র উপস্থিত হন। এই সময় হাজী মোনাফ সিকদারের নির্মাণাধীন ভবনে কাজ চলছিল। স্থানীয় কাউন্সিলর গাড়ি বারোটার আগে ঢুকতে বাঁধা দিচ্ছিল। এই নিয়ে তার সাথে ভবন মালিক পক্ষের ঝানেলা উত্তেজনা বিরাজ করছিল। আমরা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি।

হাজী মোনাফের ছেলেকে কাউন্সিলর মারেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, থানায় কেউ এমন অভিযোগ দিলে তারা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবেন।

মোনাফ হাজীর ছেলে নাছির বলেন, এর আগেও কাউন্সিলর তাদের বিভিন্নভাবে হামলা অপমান করেছে। তাদের ভবন নির্মাণে বাঁধা দিয়েছে। পূর্ব শত্রুতার জেরে আজকের এই হামলা করা হয়েছে। আগের ঘটনা গুলোর বিচার তারা রাংগুনিয়ার এমপিকে জানিয়ে ছিলেন।

তিনি আরো বলেন, আজকে হাসনী তাকে মারার এবং তার বাবা মোনাফ হাজীকে অপমান করায় তিনি সাবেক মেয়র নাছিরকে কল দিয়ে ঘটনার বিচার দেন। এসময় নাছির তাকে আশ্বাস করেন যে, এর জন্য তিনি হাসনীকে মোনাফ হাজীর কাছে মাফ চাইতে বলবেন।

যদিও কাউন্সিলর হাসনী ঘটনা অস্বীকার করে নিউজনাউকে বলেন, তিনি কাউকে মারেন নি। রাত বারোটার আগে এলাকায় ট্রাক ঢুকায় তিনি শুধু তাতে বাঁধা দিয়েছেন মাত্র। এইসময় তিনি নিজে সেখানে উপস্থিত হলে তার সমর্থকরা জড়ো হন। পুলিশ এসে সবাইকে সরিয়ে দেন।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
4
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: