‘অমানবিকতা’, স্বামী ফেলে গেলেন করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে, রাতেই মৃত্যু

চট্টগ্রাম ব্যুরো: মহামারি করোনায় পৃথিবী ব্যাপী অনেক অমানবিক দৃশ্যের দেখা মেলেছে। তেমনই একটি ঘটনা ঘটে গেল চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে। হাসপাতালে ভর্তির পর স্ত্রী করোনা আক্রান্ত শুনেই পালিয়ে যান স্বামী। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এখনো মর্গে পড়ে আছে তার লাশ।

বুধবার (৬ জুলাই) চমেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে স্ত্রী আসমা আক্তারকে (৩৮) নিয়ে আসেন স্বামী মোজাম্মেল। জ্বর, সর্দি, কাশি নিয়ে হাসপাতালে আসা আসমার তাতক্ষণিক র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্টে ধরা পড়ে করোনা। আর এই খবর শুনেই পালিয়ে যান স্বামী।

এরপর করোনা ইউনিটে ভর্তি হওয়া আসমা বুধবার (৭ জুলাই) দিবাগত রাত ১টার দিকে মারা যান। স্ত্রীর মৃত্যুর খবর জানাতে হাসপাতাল যোগাযোগ করে স্বামীর মোবাইল নাম্বারে। তবে তার নাম্বারটা বন্ধ পাওয়া যায়। তাই বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) বিকেল ৩টা পর্যন্ত আসমা আক্তারের নিথর মরদেহ পড়ে আছে চমেক মর্গে।

তার বাড়ি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজয় বলে জানিয়েছেন চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জহিরুল হক ভূঁইয়া।

তিনি জানান, আছমা আক্তারকে ভর্তির পর থেকেই কোন অভিভাবক যোগাযোগ করেননি। গতকাল রাতে আছমা আক্তার মারা গেলে স্বামীর ০১৭১৮৬৩৩২৯৮ নম্বরে ফোন করে বন্ধ পাওয়া গেছে। লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে।

নিউজনাউ/এফএস/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
1
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: