প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই গ্রেপ্তার-মামলা: ডিএমপি

নিউজনাউ ডেস্ক: করোনা নিয়ন্ত্রণে সর্বাত্মক লকডাউনে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হলেই তার বিরুদ্ধে মামলা, এমনকি গ্রেপ্তারও করা হতে পারে বলে হুঁশিয়ার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ- ডিএমপি।

বুধবার ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ঢাকার পুলিশ কমিশনার মুহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, “যদি এমন পরিস্থিতি তৈরি হয় যে প্রথম দিনে ৫০০০ মামলা ও গ্রেপ্তার করতে হচ্ছে, আমরা তাও করব।”

তিনি বলেন, “কেউ বিধি-নিষেধ ভঙ্গ করলে দণ্ডবিধির ২৬৯ ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রাস্তায় কোনো ব্যক্তিগত যানবাহনও চলবে না। শুধু রিকশা চলতে পারবে।”

১৮৮০ সালের দণ্ডবিধির ২৬৯ ধারায় বলা হয়েছে, কেউ যদি বেআইনিভাবে বা অবহেলা করে এমন কোনো কাজ করেন, যা জীবন বিপন্নকারী মারাত্মক কোনো রোগের সংক্রমণ ছড়াতে পারে, তা জানা সত্ত্বেও বা বিশ্বাস করার কারণ থাকা সত্ত্বেও তা করেন, তাহলে তাকে ছয়মাস পর্যন্ত কারাদণ্ড, বা অর্থদণ্ড, অথবা উভয় দণ্ড দেওয়া যাবে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী সরকার ঘোষিত জরুরি সেবার যানবাহন বিধিনিষেধের আওতামুক্ত থাকবে বলে জানান পুলিশ কমিশনার।

তিনি বলেন, চিকিৎসা এবং ব্যাংকিংয়ের মতো সেবায় যারা জড়িত তাদের সরকারি যানবাহন থাকলে সেটি তারা ব্যবহার করতে পারবেন, না থাকলে ব্যক্তিগত যানবাহন ব্যবহার করবেন। প্রয়োজনে পরিচয়পত্র প্রদর্শন করবেন।

সরকারের নির্দেশনায় শিল্প কারখানা খোলা রাখার কথা বলা হয়েছে। কারখানার কর্মীরা কিভাবে যাতায়াত করবেন জানতে চাইলে কমিশনার বলেন, প্রয়োজনে শিল্প মালিকরাও রিকশা ব্যবহার করবেন।

বুধবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত সর্বাত্মক লকডাউনের কঠোর বিধিনিষেধ জারি করে বলা হয়, এর বাস্তবায়নে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে সেনাবাহিনীও মাঠে থাকবে।

নিউজনাউ/টিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: