ভ্রমণের চাহিদার প্রেক্ষিতে কর্মীদের পুনরায় তলব করবে এয়ার কানাডা

আহসান রাজীব বুলবুল, কানাডা থেকে: কানাডায় এয়ার কানাডা ভ্রমণের চাহিদা বৃদ্ধির প্রত্যাশায় কর্মচারীদের পুনরায় ডাকবে। এয়ার কানাডা জানিয়েছে ভ্রমণের চাহিদা বৃদ্ধির জন্য প্রস্তুতি নেওয়ার কারণে তারা ২ হাজার ৬শ জনেরও বেশি কর্মচারীকে পুনরায় ডাকবে। এছাড়াও কর্মচারীদের পুনর্বাসিত করার জন্য বিমানের ফ্লাইট অ্যাটেন্ডেন্টসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কর্মচারীদের জুন এবং জুলাই মাসে পর্যায়ক্রমে ফিরিয়ে আনা হবে।

এয়ার কানাডার মুখপাত্র পিটার ফিৎজ প্যাট্রিক বলেন, বিমান সংস্থাগুলি শ্রমিকদের পুনরায় ডাকছে কারণ ভ্যাক্সিনেশন এর পরিমাণ বৃদ্ধি পাচ্ছে, কোভিড–১৯ শনাক্তের পরিমাণ হ্রাস পাচ্ছে এবং সরকার নিষেধাজ্ঞাগুলি সহজ হচ্ছে। তিনি আরো বলেন এই প্রক্রিয়া কর্মচারীদের পুনরায় ডাকা, এয়ারলাইনের নেটওয়ার্ক পুনর্নির্মাণ এবং ভ্রমণের প্রত্যাশিত চাহিদা মেটাতে তাদের প্রচেষ্টার অংশমাত্র।

এয়ার কানাডা গত মার্চ মাসে সংকট শুরু হওয়ার পরে কয়েক হাজার শ্রমিককে চাকরি থেকে ছাঁটাই করেছিল। অন্যদিকে এপ্রিল মাসে, এয়ারলাইন্স অটোয়ার সাথে ৫.৯ বিলিয়ন ডলার সহায়তা প্যাকেজের জন্য একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে।

এদিকে দেশের বৃহত্তম এয়ারলাইন্সও বলেছে ফ্লাইট বা অবকাশ প্যাকেজের রিফান্ড এর জন্য অনুরোধের সময়সীমা ১২ জুলাই পর্যন্ত ৩০ দিন বাড়ানো হয়েছে। রিফান্ড নীতিটি এপ্রিলের ১৩ তারিখ থেকে কার্যকর হয়েছে, এবং ৯২% অনুরোধ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। ইতিমধ্যে যোগ্য গ্রাহকদের প্রায় ৪০ শতাংশ রিফান্ডের জন্য অনুরোধ করেছেন।

উল্লেখ্য বৈশ্বিক মহামারীর করোনায় কানাডায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এয়ারলাইন্স ব্যবসা। এই পেশার শ্রমজীবী নারী ও পুরুষ অনেকেই ইতিমধ্যে তাদের পেশা পরিবর্তন করে অন্য পেশায় নিয়োজিত হয়েছেন।

নিউজনাউ/আরবি/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: