অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আসছে আগামী সপ্তাহে

নিউজনাউ ডেস্ক : দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় টিকা সরবরাহ নিশ্চিত করতে কাজ করছে ব্রিটিশ ফার্মাসিউটিক্যালস জায়ান্ট অ্যাস্ট্রাজেনেকা। আশা করছে, তাদের তৈরি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন কোভিশিল্ড টিকা ‌‘যত দ্রুত সম্ভব’ সরবরাহ নিশ্চিত করতে পারবে তারা। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী সপ্তাহে টিকা সরবরাহ শুরু হতে পারে।

এক বিবৃতিতে অ্যাস্ট্রাজেনেকা জানিয়েছে, কোভিড-১৯ টিকার সরবরাহ যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শুরু করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রত্যেক সরকারের সঙ্গে জোরালোভাবে কাজ করছে তারা। তবে থাইল্যান্ডের প্ল্যান্টে বর্তমানে কী পরিমাণ টিকা উৎপাদন হচ্ছে এবং ভবিষ্যতে কেমন হবে সে বিষয়ে প্রশ্নের জবাব দেয়নি অ্যাস্ট্রাজেনেকা।

থাইল্যান্ডের রাজা মহা ভাজিরালংকর্নের মালিকানাধীন কোম্পানি সিয়াম বায়োসায়েন্স প্রথমবারের মতো টিকা উৎপাদন করছে। এই কোম্পানিতে উৎপাদিত ২০ কোটি ডোজ টিকার ওপর নির্ভর করে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে বিতরণের পরিকল্পনা করছে অ্যাস্ট্রাজেনেকা।

রাজা মহা ভাজিরালংকর্ন সিয়াম বায়োসায়েন্সের একমাত্র মালিক হওয়ায় কোম্পানিটি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে পারছে কি না সে বিষয়ে প্রশ্ন তোলা বেশ স্পর্শকাতর। থাইল্যান্ডের রাজতন্ত্রের সম্মানহানি করা হলে তা দেশটির আইনে ১৫ বছরের কারাদণ্ডের শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

গত জানুয়ারিতে সিয়াম বায়োসায়েন্স জানায়, তাদের বছরে ২০ কোটি ডোজ টিকা উৎপাদনের সক্ষমতা আছে। যা প্রত্যেক মাসে গড়ে দেড় কোটি থেকে ২ কোটি পর্যন্ত হতে পারে। এমন বাস্তবতায় থাইল্যান্ডও জুনের মধ্যে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ৬০ লাখ ডোজ পাওয়ার প্রত্যাশা করছে। তাইওয়ানে উৎপাদন প্ল্যান্ট স্থাপনের পরিকল্পনা থাকলেও তা এখনও বাস্তবায়ন হয়নি। এদিকে, সরবরাহ চুক্তি লঙ্ঘনের দায়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নে আইনি চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে অ্যাস্ট্রাজেনেকা।

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: