একনজরে উন্নয়ন প্রকল্পের বরাদ্দ

নিউজনাউ ডেস্ক: চলতি বছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে ইতোমধ্যেই। বাংলাদেশের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বাজেট ২০২১-২২ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট। এ বাজেটে রয়েছে অনেক কিছুই। শুধু আকারেই বড় নয় সময়ের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ এ বাজেটের ব্যপ্তিও অনেক। উন্নয়নমূলক খাতগুলোতে এ বাজেটে রয়েছে ব্যাপক পরিকল্পনা। এক নজরে দেখে নেয়া যাক উন্নয়ন প্রকল্পসমূহের বাজেট।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র

২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটে একক প্রকল্পে সর্বোচ্চ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে। ‘রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র’ নির্মাণ প্রকল্প ২০২১-২২ অর্থবছরে বরাদ্দ পাচ্ছে ১৮ হাজার ৪২৬ কোটি টাকা।

পদ্মা বহুমুখী সেতু

এবারের বাজেটে পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ প্রকল্পে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ থাকছে।

মেট্রো রেল প্রকল্প

ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টে (মেট্রো রেল) চার হাজার ৮০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

মাতারবাড়ি বিদ্যুৎ প্রকল্প

মাতারবাড়ী এক হাজার ২০০ মেগাওয়াট আলট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল কোল পাওয়ার প্লান্ট প্রকল্পে ছয় হাজার ১৬২ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি

চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচিতে পাঁচ হাজার ৫৪ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

পাওয়ার সিস্টেম নেটওয়ার্ক

এক্সপানশন অ্যান্ড স্ট্রেনদেনিং অব পাওয়ার সিস্টেম নেটওয়ার্ক আন্ডার ডিপিডিসি এরিয়া প্রকল্পে তিন হাজার ৫১ কোটি টাকা বরাদ্দ থাকছে।

বিমানবন্দর সম্প্রসারণ

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সম্প্রসারণ প্রকল্পে বরাদ্দ থাকছে ২ হাজার ৮২৭ কোটি টাকা।

রেলওয়ে সেতু

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলওয়ে সেতু নির্মাণ প্রকল্পে ৩ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা-আশুলিয়া এক্সপ্রেসওয়ে

ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ প্রকল্পে ৩ হাজার ২২৭ কোটি টাকা বরাদ্দ থাকছে।ে

 

এছাড়াও বেশ কয়েকটি খাতকে সরকার করমুক্ত ঘোষণা করেছে। রাষ্ট্রের উন্নয়নও প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যে বেশ কিছু উন্নয়নমুখী খাতের অগ্রগতি ত্বরান্বিত করতে প্রণোদনা হিসেবে খাতগুলো করমুক্ত ঘোষণা করেছে সরকার।

বাংলাদেশের ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশন বাংলাদেশের ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশনে বিদ্যমান ২২টি খাতের পাশাপাশি নিম্নোক্ত আরো ৬টি নতুন খাতকে করমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। এগুলো হল- ক্লাউড সার্ভিস, সিস্টেম ইন্টিগ্রেশন, ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম, ই-বুক পাবলিকেশন, মোবাইল এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট সার্ভিস এবং আইটি ফ্রিল্যান্সিং।

কৃষিপণ্যের শিল্পায়ন, উদ্যোক্তা তৈরি এবং কর্মসংস্থানে প্রণোদনা

ক) শিল্পায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশে উৎপাদিত কৃষিপণ্যে মূল্য সংযোজনে, যেমন- ফল প্রক্রিয়াজাতকরণ, শাক-সবজি প্রক্রিয়াজাতক, দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত পণ্য উৎপাদন, এবং শিশু খাদ্য উৎপাদনকারী উদ্যোক্তাকে দশ বছর মেয়াদে কর অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে।
খ) কৃষি যন্ত্রপাতি উৎপাদনকারী উদ্যোক্তাকে দশ বছর মেয়াদে কর অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে।

মেগা শিল্প উৎপাদনে “Made in Bangladesh”- কে প্রণোদনা
মেগা শিল্পে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে অন্যূন ১০০ কোটি টাকা বিনিয়োগে স্থাপিত অটোমোবাইল (থ্রি হুইলার ও ফোর হুইলার) উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে ২০ বছর কর অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে।

হোম আপ্লায়েন্সেস উৎপাদনে “Made in Bangladesh”- কে প্রণোদনা ওয়াশিং মেশিন, ব্লেন্ডার, মাইক্রোওয়েভ অভেন, ইলেক্ট্রিক সেলাই মেশিন, ইন্ডাকশন কুকার, কিচেনহুড এবং কিচেন নাইভস্- এ সকল হোম ও কিচেন এপ্লাইয়েন্সেস উৎপাদনে স্থাপিত প্রতিষ্ঠানকে দশ বছর কর অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে।

জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন এবং কর্মসংস্থানে প্রণোদনা
শিল্পায়নের উপযোগী দক্ষ মানবসম্পদ তৈরীতে নিম্নোক্ত খাতে শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রদানে নিয়োজিত প্রতিষ্ঠানকে দশ বছর মেয়াদে কর অব্যাহতি প্রদান করা হয়ছে-
ক) কৃষি, ফিশারিজ, বিজ্ঞান ও আইটি খাতের সকল ধরনের ডিপ্লোমা ডিগ্রি ও ভোকেশনাল শিক্ষা; এবং
খ) অটোমোবাইল, এয়ারক্রাফট সংরক্ষণ, খাদ্য, ফুটওয়ার, গ্লাস, মাইনিং, মেকানিক্যাল, শিপ বিল্ডিং, লেদার, রেফ্রিজারেশন, সিরামিক্স, মেকানিস্ট, গার্মেন্টস্ ডিজাইন এবং প্যাটার্ন মেকিং, ফার্মেসি, নার্সিং, ইন্টিগ্রেটেড মেডিক্যাল, রেডিওলজি এন্ড ইমেজিং, আল্ট্রাসাউন্ড, ডেন্টাল, এনিম্যাল হেলথ এন্ড প্রডাকশন সার্ভিস, ক্লদিং ও গার্মেন্ট ফিনিসিং, পোল্ট্রি ফার্মিং এর উপর পেশাগত প্রশিক্ষণ প্রদান।

নারী উদ্যোক্তাদের প্রণোদনা

নারী উদ্যোক্তার মালিকানাধীন এসএমই খাতের কোনো প্রতিষ্ঠানের বার্ষিক টার্নওভারের পরিমাণ ৭০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হলে উক্ত প্রতিষ্ঠানের আয়কে করমুক্ত করা হয়েছে।

নিউজনাউ/এসএ/২০২১

 

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: