ইউরোপে মার্কিন গুপ্তচরবৃত্তি নিয়ে ক্ষুব্ধ জার্মানি-ফ্রান্স

নিউজনাউ ডেস্ক: ইউরোপে মার্কিন গুপ্তচরবৃত্তি নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে জার্মানি ও ফ্রান্স। সোমবার বিষয়টি নিয়ে জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের সঙ্গে কথা বলেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। দুই নেতার ফোনালাপের পর পুরো ঘটনার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও ডেনমার্কের কাছে জবাব চেয়েছেন ম্যাক্রোঁ। ম্যার্কেল জানিয়েছেন, তিনি ফরাসি প্রেসিডেন্টের বক্তব্যকে সমর্থন করেন। তবে, কূটনৈতিক মহলের একাংশের বক্তব্য, ম্যাক্রোঁর তুলনায় ম্যার্কেলের প্রতিক্রিয়া অপেক্ষাকৃত নরম।

বার্তা সংস্থা এএফপি ও কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল–জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ওই গোয়েন্দাগিরির খবর গত রবিবার প্রকাশ করে ডেনমার্কের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম ডেনমার্ক রেডিও। খবরে বলা হয়েছে, ডেনিশ গোয়েন্দা সংস্থা ডিফেন্স ইন্টেলিজেনস সার্ভিসের সহযোগিতায় দেশটির তথ্যপ্রবাহ তারে (কেবল্‌স) আড়ি পেতে সুইডেন, নরওয়ে, ফ্রান্স ও জার্মানির শীর্ষ নেতাদের ওপর গুপ্তচরবৃত্তি করে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা (এনএসএ)।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়, ২০১২ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এনএসএ জার্মানিসহ একাধিক ইউরোপীয় দেশের নেতাদের ওপর চরবৃত্তি চালায়।

ছাড়াও তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাঙ্ক–ওয়াল্টার স্টেইনমেয়ার ও বিরোধী দলের সাবেক নেতা পিয়ার স্টেইনব্রুকের ওপরও গুপ্তচরবৃত্তি করে এনএসএ। ডেনমার্কের ডিফেন্স ইন্টেলিজেনস সার্ভিসের। তদন্তে আরও বলা হয়েছে, ইন্টারনেট তারের মাধ্যমে ডেনমার্কে আদান–প্রদান তথ্যপ্রবাহে প্রবেশ করে এনএসএ। তারা বার্তা, টেলিফোন কল, সার্চিংসহ ইন্টারনেট ট্রাফিক, চ্যাট, ম্যাসেজিং সার্ভিসে আড়ি পাতে।

ডেনমার্কের রেডিওতে গুপ্তচরবৃত্তির তথ্য প্রকাশের পরপরই বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেন স্নোডেন। ওই ঘটনায় বর্তমান মার্কেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত বলে অভিযোগ করেন বর্তমানে রাশিয়ায় বসবাসকারী স্নোডেন।

নিউজনাউ/এফএস/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: