যশোরে ৮ জনের শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট

যশোর প্রতিনিধি : এবার যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জিনোম সেন্টারে পরীক্ষার পর স্থানীয় ৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত করা হয়েছে। এদের মধ্যে সাত জন পুরুষ ও একজন নারী। তাদের সবার বয়স ৫৬ বছরের নিচে।

সোমবার (৩১ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে যবিপ্রবির জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আব্দুর রশিদের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। জানানো হয়, শনাক্ত হওয়া রোগীদের মধ্যে কারোরই ভারতে যাওয়ার কোনও সম্পর্ক বা ইতিহাস নেই।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, যবিপ্রবির জিনোম সেন্টারে সোমবার সহযোগী পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. ইকবাল কবীর জাহিদের নেতৃত্বে একদল গবেষক করোনাভাইরাসের ভারতীয় ধরন শনাক্ত করেন। ইতোমধ্যে ভারতীয় ধরন শনাক্তের বিষয়টি স্বাস্থ্য অধিদফতর, আইইডিসিআর, যশোরের স্থানীয় প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে।

জিনোম সেন্টার থেকে জানানো হয়, গত ২৯ মে চার জনের নমুনা অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, তিন জনের নমুনা ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল এবং আরেকজনের নমুনা ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে যবিপ্রবির ল্যাবে পাঠানো হয়। সম্প্রতি ভারত ফেরত কোয়ারেন্টিনে থাকা পরবর্তী সময়ে পজিটিভ হওয়ার হার যশোর জেলায় গড়ে ১০ থেকে ১৯ শতাংশে উন্নীত হওয়ায় স্থানীয়রা সংক্রমিত হয়েছেন কিনা সেটি জানার জন্য স্থানীয় ৩৬ জনের নমুনা সিকোয়েন্সিং করে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত করা হয়।

গবেষক দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বি১.৬১৭.২ নামের ভ্যারিয়েন্টটি জিনোম সেন্টারে শনাক্ত হয়েছে। গত ৮ মে যবিপ্রবির ল্যাবে সর্বপ্রথম দুই জনের নমুনায় ভারতীয় এ ধরন শনাক্ত হয়। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে এখন পর্যন্ত ভারত ফেরত ৫৫০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ জনের করোনার পজিটিভ রিপোর্ট পেয়েছে। যবিপ্রবির ল্যাবে এ পর্যন্ত ভারত ফেরত ও স্থানীয়সহ ১৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে।

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: