দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অতিধনীরা ঝুঁকছেন সিঙ্গাপুরের দিকে

নিউজনাউ ডেস্ক: বর্তমানে বসবাসের জন্য সিঙ্গাপুরের দিকে ঝুঁকছেন দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অনেক ধনী ব্যক্তি। করোনা থেকে রক্ষা পেতে সিঙ্গাপুরে স্থায়ী আবাসের আবেদনও জানিয়েছেন অনেকে। জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুযায়ী, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ায় মৃত্যুর হার সিঙ্গাপুরের চেয়ে ১০ থেকে ৩০ শতাংশ বেশি।

২০১৯ সালে সিটি স্টেট এলাকায় একক পারিবারিক অফিসের যে সংখ্যা ছিল, তা এখন হয়েছে প্রায় দ্বিগুণ । সম্প্রতি গুগলের সহপ্রতিষ্ঠাতা সের্গেই ব্রিন চীনা ধনী সু পিংয়ের সঙ্গে মিলে নতুন একটি ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেছেন। ব্যক্তিগত গলফ ক্লাবের সদস্যপদের জন্য আবেদনের সংখ্যা বাড়ছেই। ২০১৮ সালের তুলনায় অনেক বেড়েছে জমি ও বাসাবাড়ির দাম।

বিভিন্ন বৈশ্বিক ব্যাংকও নতুন নতুন শাখা খুলে সিঙ্গাপুরে ব্যবসা বাড়াচ্ছে। এক ব্যাংক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, নতুন হিসাব খোলার ক্ষেত্রে এগিয়ে আছেন চীনা গ্রাহকরা। এর পরেই আছেন ভারত ও ইন্দোনেশিয়ার গ্রাহকরা। দুই দশক ধরে সিঙ্গাপুরে প্রযুক্তি খাতে ব্যবসা করছেন হারিশ বাহল।

অতিধনীদের জন্য সিঙ্গাপুরে আবাস গড়ার ক্ষেত্রে নানা ধরনের সুবিধা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। যেমন স্থানীয় ব্যবসায় অন্তত ২৫ লাখ ডলার বিনিয়োগ করলে দ্রুত স্থানীয়ভাবে বসবাসের সুযোগ পাবেন বিশ্বের যেকোনো দেশের নাগরিকরা। তবে সেক্ষেত্রে থাকতে হবে নিজস্ব অফিস ও ২০ কোটি ডলারের সম্পদ।

নিউজনাউ/এফএস/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান
%d bloggers like this: