৩৩ শতাংশ নারী কোটা কি পূরণ হবে!?

আওয়ামী লীগের ২১তম কাউন্সিল হচ্ছে। তবে আলোচনায় নারী নেতৃত্ব নিয়ে। ৩৩ শতাংশ নারী নেতৃত্বের কোটা কি পূরণ করতে পারবে ক্ষমতাসীন দল?
দলীয় কাঠামো অনুযায়ী ৮১ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদায়ন করা আছে ৭৬ জন, এর মধ্যে নারী আছেন মাত্র ১৫ জন বা ১৯ দশমিক ৭৪ শতাংশ। ২০২০ সালের মধ্যে নির্বাচন কমিশনের নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোতে ৩৩ শতাংশ নারী কোটা বাস্তবায়নের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

কেন্দ্রীয় নেতারা বলছেন, এবারের সম্মেলনে বাড়াতে না পারলেও ধাপে ধাপে বাড়ানো হবে। এমনকি নির্দিষ্ট ৩৩ শতাংশ কোটা ছাড়িয়ে যাওয়ারও আশা ব্যক্ত করছেন তারা।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের (আরপিও) ৯০-এর খ-এর খ (২) অনুচ্ছেদে কেন্দ্রীয় কমিটিসহ রাজনৈতিক দলের সব স্তরের কমিটিতে অন্তত ৩৩ শতাংশ পদ নারী সদস্যদের জন্য সংরক্ষণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ এবং ২০২০ সালের মধ্যে সেই লক্ষ্য অর্জনের কথা বলা হয়েছে। সেই হিসেবে আগামী বছর এই সময়সীমা শেষ হবে। সর্বশেষ ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের ২০তম কাউন্সিলের মাধ্যমে গঠিত ৭৬ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটিতে নারী ছিলেন মাত্র ১৫ জন। অর্থাৎ পূর্ণাঙ্গ এই কমিটিতে নারীর সংখ্যা ১৯ দশমিক ৭৪ শতাংশ।
ক্ষমতাসীন দলে নারী নেতৃত্বের বিকাশ হবে। ত্যাগী নারী নেত্রীরা উঠে আসবে, এমন প্রত্যাশা সবার।

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
আপনার মতামত জানান