মুনিয়ার সাথে ভাইয়ের সম্পর্কের টানাপোড়েন ছিল

নিউজনাউ ডেস্ক: গুলশানের একটি ফ্ল্যাট থেকে তরুণী মোসারাত জাহান মুনিয়া রবিবার আদালতে হত্যা মামলা করে আলোচনায় আসেন তার একমাত্র ভাই আশিকুর রহমান সবুজ।

এ সময় দুই বোনের সঙ্গে সম্পর্কের টানাপোড়েন ছিল বলে সবুজ নিজেই স্বীকার করেছেন।

রবিবার ঢাকার মুখ্য মহানগর আদালতে (সিএমএম) মুনিয়ার মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় সবুজ হত্যা মামলার আবেদন করেন। এতে জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরীর ছেলে নাজমুল হক চৌধুরী শারুনকে আসামি করা হয়েছে। মুনিয়ার মৃত্যুর পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মুনিয়া ও শারুনের কথোপকথনের কয়েকটি স্ক্রিনশট ছড়িয়ে পড়ে। পরে হুইপপুত্র শারুনকে জিজ্ঞাসাবাদও করে পুলিশ। সেই সূত্র ধরে শারুনকে আসামি করে মামলাটি করেন সবুজ।

সবুজের এই মামলার বিষয়টি ভালোভাবে দেখছেন না তার বোন নুসরাত জাহান। গণমাধ্যমের কাছে তিনি দাবি করেছেন, এই মামলার পেছনে তার ভাইয়ের কোনো খারাপ উদ্দেশ্য থাকতে পারে। তার এই মন্তব্যের দ্বারাই অনুমান করা যায়, তাদের ভাইবোনদের মধ্যে সম্পর্কের টানাপোড়েন ছিল।

সম্প্রতি একটি গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বোনদের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো ছিল না সেটা স্বীকার করে সবুজ বলেন, ‘ওদের সঙ্গে আমার যোগাযোগটা একটু বিচ্ছিন্ন ছিল অন্য কারণে। এই যে এত কিছু হয়েছে এটা আমি জানতাম না। হঠাৎ এই ঘটনার পর আমি জানতে পারলাম। বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা এবং অনলাইনে দেখলাম এটা আমার জানাই ছিল না।’

এর আগে গত ২৬ এপ্রিল ‍গুলশান-২ নম্বরের ১২০ সড়কের একটি ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়ার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ঘটনায় মুনিয়ার বড় বোন বাদী হয়ে একটি মামলা করেন।

নিউজনাউ/টিএন/২০২১

+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
মন্তব্য
Loading...
%d bloggers like this: