alo
ঢাকা, বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সুইজারল্যান্ডে ‘বোরখা নিষিদ্ধ আইন’, পরলেই লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর, ২০২২, ০৬:৩২ পিএম

সুইজারল্যান্ডে ‘বোরখা নিষিদ্ধ আইন’, পরলেই লাখ টাকা জরিমানা
alo

 

নিউজনাউ ডেস্ক: জননিরাপত্তা নিশ্চিতে গত বছর প্রকাশ্যে এবং জনসমাগমপূর্ণ স্থানে মুখঢাকা বোরকা নিষিদ্ধ হয়েছিল সুইজারল্যান্ডে। সেই নিষেধাজ্ঞাকে আরও পোক্ত করতে এবার নতুন একটি আইন জারির প্রস্তুতি চলছে দেশটির পার্লামেন্টে।

প্রস্তাবিত নতুন আইন অনুযায়ী, সরকারের নিষেধ অমান্য করে কেউ যদি মুখঢাকা বোরকা পড়েন তাহলে তাকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ডলার জরিমানা গুণতে হতে পারে।

ইতোমধ্যেই এই আইনের খসড়া পাঠানো হয়েছে সুইজারল্যান্ডের পার্লামেন্টে। তবে নতুন আইনের খসড়া প্রস্তাবে বেশ কিছু জায়গায় ছাড় দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে। খবর রয়টার্সের।

সেখানে বলা হয়েছে, কূটনৈতিক ক্ষেত্রে, ধর্মীয় স্থানে বা বিমানে পরা যাবে বোরখা। এর পাশাপাশি, স্বাস্থ্য সংক্রান্ত কোনো নির্দেশিকা জারি হলেও মুখ ঢেকে রাস্তায় বের হওয়া যাবে।  
অর্থাৎ, বাড়ির বাইরে সড়কে চলাচল করার সময় কিংবা কর্মক্ষেত্র, রেস্তোরাঁ, সুপারমার্কেট বা যে কোনো জনসমাগমপূর্ণ স্থানে অবশ্যই মুখঢাকা বোরকা পরা থেকে নিজেকে বিরত রাখতে হবে সুইজারল্যান্ডে বসবাসকারী লোকজনকে। যদি কেউ মুখঢাকা বোরকা পরেন, তাহলে তার কাছ থেকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ডলার পর্যন্ত জরিমানা আদায় করতে পারবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

২০২১ সালে বোরখা পরে রাস্তায় বের হওয়া বন্ধ করতে নির্দেশিকা জারি করেছিল সুইজারল্যান্ড প্রশাসন। ওই সময় থেকেই এই ইস্যুতে আইন তৈরির কথা ভাবা হয়েছিল। ইউরোপের বেশ কিছু দেশে ইতোমধ্যেই বোরখা পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। 

২০১১ সালে প্রথমবার আইন করে বোরখা নিষিদ্ধ করেছিল ফ্রান্স। পরবর্তীক্ষেত্রে ডেনমার্ক, অস্ট্রিয়া, নেদারল্যান্ড এবং বুলগেরিয়াতেও একই ধরনের আইন পাস করা হয়। 

সুইজারল্যান্ডের জনসংখ্যার ৫ শতাংশ মুসলিম। তাদের অধিকাংশই তুর্কি, বসনিয়া এবং কোসোভো থেকে এসেছেন বলে দাবি সুইস প্রশাসনের। তবে ইরানের হিজাব আন্দোলনের আবহে নতুন এই আইন পাস করানোর সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেছেন কট্টরপন্থীরা।

নিউজনাউ/এসএইচ/২০২২

X