মালিক হয়েও ট্রেড ইউনিয়নের সভাপতি! শ্রম দপ্তরে অভিযোগ

অভিযোগ, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে)’র সভাপতি মুন্সি মো. মাহবুব আলম সোহাগের বিরুদ্ধে।

নিজস্ব প্রতিবেদক
পত্রিকার মালিক হয়েও সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য এমন কী সভাপতির দায়িত্ব পালন করার অভিযোগ উঠেছে খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে)’র সভাপতি মুন্সি মো. মাহবুব আলম সোহাগের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ সাধারণ সমস্যদের পক্ষে তাঁর সদস্য পদ বাতিল চেয়ে খুলনা শ্রম দপ্তরে আবেদন করেছেন সংগঠনের তিন সদস্য। শ্রম দপ্তর ওই নেতাকে সংগঠনের গঠনতন্ত্র ও শ্রম আইন লংঘন করে ইউনিয়নের সদস্য পদ বহাল রাখার ব্যাখ্যা চেয়ে চিঠি দিয়েছিলেন। ১৫দিনের মধ্যে ওই ব্যাখ্যা দেয়ার কথা থাকলেও দীর্ঘ এক মাসেও শ্রম দপ্তরে লিখিত ব্যাখ্যা জমা পড়েনি। এমন কী এ নিয়ে পরবর্তী কোন উদ্যোগ নেননি খুলনা শ্রম দপ্তর।
অভিযোগ উঠেছে, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের গঠনতন্ত্র লঙ্ঘনকারী মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ রাজনৈতিক ক্ষমতা ব্যবহার করে এখনও স্বপদে বহাল রয়েছেন।
খুলনা শ্রম দপ্তরে সূত্র জানিয়েছেন, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে), যার রেজিঃ নং-১০০৮-এর বর্তমান সভাপতি মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ দৈনিক দেশ সংযোগ পত্রিকার মালিক হিসাবে প্রকাশক ও সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি ইউনিয়নের সংশোধিত গঠনতন্ত্রের দুই অনুচ্ছেদের ধারা-১এর উপধারা ৪ এর বিধান মতে মালিক হওয়ায় সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য থাকতে পারেন না। কিন্তুু তিনি বিষয়টি গোপন করে খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে) এর সদস্য পদ বহাল রেখে নির্বাচনে অংশ নেন। একই সাথে ওই নির্বাচনে প্রভাব খাটিয়ে সভাপতি নির্বাচিত হন। এ ঘটনায় ইউনিয়নের সাধারণ সদস্যদের পক্ষে তিন সদস্য ১৩ ফেব্রুয়ারি খুলনা বিভাগীয় শ্রম দপ্তরের পরিচালক মো. মিজানুর রহমানের আবেদন করেন। শ্রম পরিচালক গত ১৬ ফেব্রুয়ারি এ ঘটনায় মাহবুব আলম সোহাগের কাছে ১৫দিনের মধ্যে লিখিত ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য চিঠি দেন।
এতে তিনি বলেন, বাংলাদেশ শ্রম আইন, ২০০৬ (সংশােধিত-২০১৮) এর ধারা ১৭৬ (ক) শ্রমিক এবং মালিকের সম্পর্ক অথবা শ্রমিক এবং শ্রমিকের সম্পর্ক নিয়ন্ত্রণ করার লক্ষ্যে কোন পার্থক্য ছাড়াই সকল শ্রমিকের ট্রেড ইউনিয়ন গঠন করার এবং সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের গঠনতন্ত্র সাপেক্ষে তাদের নিজস্ব পছন্দের ট্রেড ইউনিয়নে যোগদানের অধিকার থাকবে। ধারা ১৭৬ (খ) মালিক এবং শ্রমিকের সম্পর্ক অথবা মালিক এবং মালিকের সম্পর্ক নিযয়ন্ত্রণ করার লক্ষ্যে কোন পার্থক্য ছাড়াই সকল মালিকের ট্রেড ইউনিযয়ন গঠন করার এবং সংশ্লিষ্ট ইউনিযয়নের গঠনতন্ত্র সাপেক্ষে তাদের নিজস্ব পছন্দের ট্রেড ইউনিযয়নে যােগদানের অধিকার থাকবে। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশ শ্রম আইন, ২০০৬ (সংশােধিত-২০১৮) এর সংশ্লিষ্ট ধারা এবং খুলনা সাংবাদিক ইউনিযয়ন, রেজি: নং- খুলনা-১০০৮ এর বিদ্যমান রেজিস্ট্রিকৃত গঠনতন্ত্রের অনুচ্ছেদ ২ এর ধারা (১৪) এর বিধান মতে সংবাদপত্রের মালিক, পরিচালক (ডাইরেক্টর) বা কর্মাধ্যক্ষ (ম্যানেজিং এডিটর) গণের বর্ণিত ট্রেড ইউনিয়নের সদস্য বা কর্মকর্তা হওয়ার সুযােগ নেই।

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...