বাইডেনকে এখনো অভিনন্দন জানাননি যারা

নিউজনাউ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন জো বাইডেন। ইতোমধ্যে বিশ্বের অনেক রাষ্ট্রপ্রধান বাইডেনকে অভিনন্দন জানাতে শুরু করেছেন। যেমন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘আমেরিকার দায়িত্ব নেয়ার জন্য আপনাকে অভিনন্দন। আশা রাখি মার্কিনিরা আপনার সময়ে অনেক ভালো থাকবে।’ এছাড়া ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুও অভিনন্দন জানিয়েছেন বাইডেনকে।

এদিকে একাধিক টুইটে নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে জয়ের জন্য শুভেচ্ছা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদী। বারাক ওবামা প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে ভারত-আমেরিকা সম্পর্ক মজবুত করতে বাইডেনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা উল্লেখ করেন তিনি। তিনি লেখেন, ‘অসাধারণ জয়ের জন্য অভিনন্দন জো বাইডেন। ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে ভারত-আমেরিকা সম্পর্ক মজবুত করতে আপনার অবদান খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও মূল্যবান ছিল। সেই সম্পর্ক আরও দৃঢ় করার আশায় একসঙ্গে কাজ করার অপেক্ষায় রইলাম।’

তবে বিশ্বের অনেক নেতাই এখনো অভিনন্দন জানাননি বাইডেনকে। মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদর জানিয়েছেন, যতক্ষণ পর্যন্ত নির্বাচন নিয়ে সব ধরনের বৈধ চ্যালেঞ্জের সমাধান হবে না ততক্ষণ পর্যন্ত তিনি বাইডেনকে তার জয়ের জন্য স্বাগত জানাবেন না। এর আগে লোপেজ ওব্রাদর এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, জো বাইডেন এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দুজনের সঙ্গেই তার দেশের ভালো সম্পর্ক রয়েছে। সে কারণে বৈধ চ্যালেঞ্জগুলো শেষ না হওয়া পর্যন্ত তিনি অপেক্ষা করতে চান। তিনি বলেন, ‘আমরা এখনই বেপরোয়া আচরণ করতে চাই না।’

ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে উষ্ণ সম্পর্ক বিদ্যমান এমন অনেক নেতাই বাইডেনকে স্বাগত জানানো থেকে নীরব ভূমিকায় অবস্থান করছেন। এর মধ্যে অন্যতম ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনারো এবং সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। এছাড়া রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান এবং চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংও জো বাইডেনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে কোনো বক্তব্য দেননি।

ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনারোর মধ্যে বেশ ভালো সম্পর্ক বিদ্যমান। কিন্তু সেদিক থেকে বাইডেনের সঙ্গে বোলসোনারোর সম্পর্ক মোটেও ভালো নয়। নির্বাচনী দৌড়ে এ বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে উঠেছে।

এছাড়া হাঙ্গেরি প্রেসিডেন্ট ভিক্টর অরবান ও নর্থ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনও বাইডেনকে অভিনন্দন জানানো থেকে নিজেদের বিরত রেখেছেন।

নিউজনাউ/এমএএম/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...