কোথায় আছড়ে পড়বে আম্ফান?

0 18

আতিয়ার পারভেজ:

কোথায় আছড়ে পড়বে সুপার সাইক্লোন আম্ফান? কত গতিবেগ নিয়ে চালাবে ধ্বংসলীলা? এই দুই প্রশ্ন নিয়ে চলছে বিশ্লেষণ। আবহাওয়াবিদরা দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন। গতিবেগ নিয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত, মূল ধাক্কার গতিবেগ ১৮৫ কিলোমিটার বেগে হতে পারে। এরপর ১৩৫ কিলোমিটার বেগে শক্তি নিয়ে আছড়ে পড়বে। তারপর শক্তি হারাতে থাকবে। কিন্তু কোথায় আছড়ে পড়বে তা এখনও স্পষ্ট নয়।

দুই বাংলার আবহাওয়াবিদদের ধারণা থেকে বোঝা যায়, কলকাতার দীঘা ও বাংলাদেশের হাতিয়া দ্বীপের মাঝ বরাবর দিয়ে আছড়ে পড়তে পারে। সে ক্ষেত্রে কলকাতার কাকদ্বীপ ও বাংলাদেশের সাতক্ষীরা ও খুলনার কয়রায় চোখ রাঙাতে পারে আম্ফান। পারে শক্তি হারিয়ে উত্তর-পশ্চিম দিক দিয়ে এগিয়ে নিঃশেষ হতে। আর যদি গতিপথ পরিবর্তন করে, তবে সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, ভোলা ও কক্সবাজার বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

এর আগে বাংলাদেশে বুলবুল ও আইলা যে ধরণের তাণ্ডব চালিয়েছে, ধারণা করা হচ্ছে তার চেয়ে অনেক বেশি ধ্বংসযজ্ঞ চালাতে পারে আম্ফান। সে ক্ষেত্রে উপকূলীয় এলাকার কাঁচাঘর, বেরিবাঁধ, মৎস্যঘের, গবাদি পশু ও গাছপালার ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। বিশেষ করে খুলনা ও বরিশাল বিভাগের সমুদ্র উপকূলবর্তী ৮ টি জেলার ১৪টি উপজেলা ও কক্সবাজারসহ চট্টগ্রাম বিভাগের উপকূলীয় এলাকার কমপক্ষে দুই কোটি মানুষকে এই দুর্যোগ পোহাতে হতে পারে।

এদিকে, চলমান করোনা পরিস্থিতির মধ্যে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান মোকাবিলা করতে প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ সঙ্কটে পড়তে পারে। তবে প্রত্যন্ত এলাকায় এবার উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতার জন্য সর্বোচ্চ শক্তি নিয়োগ করেছে বাংলাদেশ নৌ বাহিনী। তারা উদ্ধারকারী জাহাজ এর পাশাপাশি হেলিকপ্টার প্রস্তুত রেখেছে। করোনার কারণে সাধারণ মানুষ চরম অর্থ সংকটের মধ্যে রয়েছে। এই পরিস্থিতির মধ্যে নতুন দুর্যোগ ডেকে আনতে পারে আম্ফান। করোনা মোকাবিলায় সরকার অনেকগুলো বিষয়ে এক্সপেরিমেন্ট চালিয়েছে। তারপরও জনগণের প্রকৃত উপকার কিভাবে করা সম্ভব এমন স্থির সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি। যদি আম্ফান বাংলাদেশে আঘাত হানে এবং ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়, তাহলে দেরি না করে সরাসরি পুরো উদ্ধার তৎপরতার কাজ সেনাবাহিনীর হাতে ছেড়ে দিলে সব বিবেচনায় ভালো উদ্যোগ হতে পারে।

নিউজনাউ/এসএ/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...