সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে পথনাটকে ফিরছে মেঠোপথ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ক‌রোনাক্র‌ন্তিতে প্রায় চারমাস যাবত বন্ধ র‌য়ে‌ছে বাংলা‌দেশ শিল্পকলা একা‌ডেমির সবক‌টি মিলনায়তন, সব অনুষ্ঠান, মঞ্চনাটক প্রদর্শনী এমন‌কি সব ধরনের মহড়া। এ সময়টা‌তে বল‌তে গে‌লে থি‌য়েটা‌রের কর্মীরা প্রায় সক‌লেই র‌য়ে‌ছেন নিজ নিজ আবাসস্থ‌লে। দীর্ঘ সময় পর গে‌লো ৮ জুলাই বাংলা‌দেশ শিল্পকলা একাডে‌মির সম্মু‌খে থি‌য়েটার প্রদর্শনী কর‌লেন মে‌ঠোপথ থি‌য়েটা‌রের প্র‌তি‌ষ্ঠাতা শামীমা আক্তার মুক্তা। করোনাকালীন থি‌য়েটার প্রদর্শনী নি‌য়ে কথা ব‌লেন নিউজনাউ এর সা‌থে।

প্রশ্ন: সম্প্র‌তি বাংলা‌দেশ শিল্পকলা একা‌ডে‌মির সাম‌নে করোনাকালীন থিয়েটার নিজ উদ্যোগে সম্পন্ন করেছেন। প্রসঙ্গ কি ছি‌লো?

— পৃথিবীর সব জায়গায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাজ শুরু হয়েছে। অ‌নেক দে‌শে তো সব স‌চেতনতা মে‌নে চলছে থি‌য়েটা‌রের কার্যক্রম। চল‌ছে প্রদর্শনীও। তাহ‌লে আমা‌দের দে‌শে থি‌য়েটার শুরু হবে না কেন‌? এই ভাবনা থেকে ছোট পরিসরে বাংলা‌দেশ শিল্পকলা একা‌ডে‌মির গেটের সামনে একটি তাৎক্ষণিক থিয়েটার উপস্থাপন করি। বিষয়টা ছিলো এমন,

থিয়েটারের কাজ থাকুক আর না থাকুক, আমরা নাট্যকর্মীরা এখানে প্রতিদিন আসতাম। কেউ কেউ এসেছে প্র্যাকটিস করতে। একজন এসে বলছে থিয়েটার ঝালাই বাদ দাও। বাড়িতে গিয়ে লাইভ থিয়েটার করো। আরেকজন এসে বললো আরে মন খারাপ করো না। মহামা‌রি করোনা চলে গে‌লে সব ঠিক হয়ে যাবে। চলো গান গেয়ে মন ভালো করি। আবার জমবে মেলা বট তলা হাট খোলা দি‌য়ে গান শুরু হয়। আমার স‌ঙ্গে অ‌ভিন‌য়ে ছি‌লেন, জুলফিকার চঞ্চল, কামাল হাসান, রাজীব রেজা, কানিজ ফাতেমা।

আমরা সবসময় থিয়েটার করি। যতদিন বাঁচবো থি‌য়েটার‌কে জ‌ড়ি‌য়ে বাঁচ‌বো। তাই মহামারী চ্যালেঞ্জ করেই এগিয়ে যেতে হবে। উন্নত দেশগুলো থিয়েটার করছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে। আমরাও পারবো আশা করছি।

প্রশ্ন: থি‌য়েটা‌রে যুক্ত আ‌ছেন ক‌তোবছর? লকডাউ‌নের সময়টা কীভাবে সময় দি‌য়ে‌ছেন নি‌জে‌কে?

— থি‌য়েটা‌রে আমার পথচলা ২২ বছর। ১৯৯৭ সাল থে‌কে থি‌য়েটার কর‌ছি আ‌মি। ৩ বছর হ‌লো নিজস্ব একটা থি‌য়েটা‌রের দল তৈ‌রি ক‌রে‌ছি। নাম মে‌ঠোপথ থি‌য়েটার। যে‌হেতু নাট্যকর্মী আ‌মি আর থি‌য়েটারই  আমার ধ্যানজ্ঞান তাই পুরো লকডাউনে আমি নিজেকে নতুনভাবে প্রস্তুত করার চেষ্টা করেছি। গিটার প্র্যাকটিস, ইউকেলেলে প্র্যাকটিস, এক্সপ্রেশন প্র্যাকটিস করেছি। সলো নাটক তৈরি করে সেগুলো ভিডিও করেছি। মুভি দেখেছি। এইসবই আমার থিয়েটারে কা‌জে আস‌বে ব‌লে আমার বিশ্বাস।

প্রশ্ন: ক‌রোনা ক‌বে যা‌বে তা বলা মুশ‌কিল। সময়টা থি‌য়েটা‌রের জন্য বড় চ্যা‌লেঞ্জ। চ্যা‌লেঞ্জ মোকা‌বিলায় কি ধরনের উ‌দ্যোগ নি‌চ্ছেন?

—যত বিপদই হোক না কেন, যুগ যুগ ধ‌রে কিন্তু থি‌য়েটার চ‌লে‌ছে তার আপনসত্ত্বায়। হ্যাঁ ‌বৈ‌শ্বিক মহামারি‌তে কিছু‌দিন হয়‌তো কার্যক্র‌মে বিঘ্ন ঘট‌ছে তবুও বন্ধ‌ তো হয়‌নি। এই সময়টা থি‌য়েটা‌রের নাট্যকর্মী হিসেবে আমা‌দের কাছে চ্যা‌লেঞ্জ। আমরা মে‌ঠোপথ থি‌য়েটা‌রের কর্মীরা সামাজিক দুরত্ব বজায় রে‌খে পথনাটক করবো, সবাইকে সচেতন করবো।

প্রশ্ন: নতুন প্রোডাকশন নি‌য়ে কোনে‌কিছু ভে‌বেছেন?

— মেঠোপথ থিয়েটারের সব সদস্যরা মিলে পরবর্তীতে নতুন একটা মিউজিক্যাল নাটক করার সিদ্ধান্ত নি‌য়ে‌ছি। করোনার ভয়াবহতা কমে গেলে স্বাস্থ্য‌বি‌ধি মে‌নে ম‌ঞ্চে নি‌য়ে আস‌বো নতুন নাটক।

নিউজনাউ/এসএইচ/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...