alo
ঢাকা, মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ৭, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্মার্টফোনের জন্য যে প্রসেসর ভালো

প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারী, ২০২৩, ০৭:০৫ পিএম

স্মার্টফোনের জন্য যে প্রসেসর ভালো
alo

নিউজনাউ ডেস্ক: স্মার্টফোন কেনার সময় ডিসপ্লে, ক্যামেরা, র‌্যাম ও প্রসেসরের কনফিগারেশন দেখা হয়। সব মোবাইলে একটি সিস্টেম অন চিপের মধ্যে থাকে প্রসেসর। একাধিক প্রতিষ্ঠান মোবাইলের জন্য এই চিপসেট তৈরি করে।

অ্যানড্রয়েড ফোনের জগতে সবথেকে জনপ্রিয় নাম কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ও মিডিয়াটেক। এছাড়াও এক্সিনোস ও ইউনিসক চিপসেট ব্যবহার হয় কিছু মোবাইলে। আইফোনে থাকে অ্যাপলের নিজস্ব চিপসেট। কিন্তু নতুন অ্যানড্রয়েড ফোন কেনার আগে কোন প্রসেসর আপনার জন্য আদর্শ?


কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন
মার্কিন সেমিকন্ডাকটর কোম্পানির কোয়ালকমের মোবাইল চিপসেটের নাম স্ন্যাপড্রাগন। এটাই বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় মোবাইল চিপসেট প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির সদর দফতর ক্যালিফোর্নিয়ার সান দিয়েগোতে। ২০২৩ সালে বিক্রি হওয়া বেশিরভাগ স্মার্টফোনেই কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন চিপসেট ব্যবহার হয়। এই মুহূর্তে বাজারে রয়েছে কোম্পানির সবথেকে শক্তিশালী চিপসেট স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেনারেশন ২।

এই সিরিজের ফোনগুলো তুলনামূলক কম দামে বিক্রি হয়। এছাড়াও মিডরেঞ্জ সেগমেন্টে রয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৭ সিরিজ ও স্ন্যাপড্রাগন ৬ সিরিজের বিভিন্ন চিপসেট। সস্তায় ফোন কিনতে চাইলে স্ন্যাপড্রাগন ৪ সিরিজের চিপসেট দেখতে পারেন। মূলত দুর্দান্ত পারফরম্যান্স ও ব্যাটারি এফিশিয়েন্সির জন্য জনপ্রিয় স্ন্যাপড্রাগন মোবাইল চিপসেটগুলো।

মিডিয়াটেক
মোবাইল চিপসেট জনপ্রিয়তার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মিডিয়াটেক। এটা তাইওয়ানের সংস্থা। কম দামে শক্তিশালী প্রসেসরের ফোন কিনতে চাইলে মিডিয়াটেকের চিপসেট দেখে নিতে পারেন। কোম্পানির ডায়মেনসিটি সিরিজের প্রসেসরগুলো সম্প্রতি দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এছাড়াও রয়েছে সস্তার হেলিও ও জি সিরিজের বিভিন্ন চিপসেট। তবে মিডিয়াটেক চিপসেটের সুরক্ষা নিয়ে একাধিকবার প্রশ্ন উঠেছে। এছাড়াও এই চিপসেটগুলো স্ন্যাপড্রাগনের মতো ব্যাটারি এফিশিয়েন্ট নয় বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের।

এক্সিনোস
এক্সিনোস ব্র্যান্ডের অধীনে মোবাইল চিপসেট তৈরি করে স্যামসাং। কোম্পানির বিভিন্ন ফোনে এই কারণেই এক্সিনোস সিস্টেম অন চিপ ব্যবহার হয়। তবে স্যামসাং ছাড়াও অন্যান্য ব্র্যান্ডের ফোনেও এই চিপসেট দেখা যায়। মূলত স্ন্যাপড্রাগনের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় মোবাইল চিপ তৈরি করে এক্সিনোস। তবে স্ন্যাপড্রাগনের মতো জনপ্রিয় নয় দক্ষিণ কোরিয়ার এই চিপসেটগুলো। এক্সিনোস ছাড়াও কিছু স্যামসাং মোবাইলে ব্যবহার হয় স্ন্যাপড্রাগন চিপসেট।

ইউনিসক
এটা চীনা সেমিকন্ডাকটর প্রস্তুতকারী সংস্থা। বাজেট সেগমেন্টের কয়েকটি ফোনে ইউনিসক চিপসেট দেখা যায়। মটোরোলাসহও একাধিক জনপ্রিয় ব্র্যান্ডের ফোনে এই চিনা চিপসেট দেখা যায়। তবে স্ন্যাপড্রাগন ও মিডিয়াটেকের থেকে পারফরম্যান্স ও এফিসিয়েন্সিতে অনেকটাই পিছিয়ে ইউনিসক চিপসেট।

X