কুড়িগ্রামে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যা, স্বামী আটক

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: পারিবারিক কলহের জেরে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করেছেন এক পাষাণ্ড স্বামী। ঘাতক স্বামীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। এ নির্মম হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার(২১ আগস্ট) রাতে। ফুলবাড়ী উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের আজোয়াটারী গ্রামের খলিল মেম্বারের বাড়ি সংলগ্ন এলাকায়। রাতে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ওই গ্রামের রিয়াজুল ইসলাম জানান শুক্রবার সকালে মানতের একটি ছাগল কুরবানি দেয় ঘাতক নজির হোসেন। মানতের মাংস বন্টন করে দেয়া হয় এলাকায়। কিছু মাংস তার স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৪৩) ঘরে রাখে। সেই মাংস রান্না করাকে কেন্দ্র করে উভয়ের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ সৃষ্টি হয়। এক পর্যায় স্ত্রীর উপর ক্ষিপ্ত হয়ে নিজ ঘরে দেশি ধারালো দা দিয়ে গলায় কোপ দেন নজির। সাথে সাথে মাটিতে রক্তাত অবস্থায় লুটিয়ে পড়েন আনোয়ারা বেগম।

খবর পেয়ে লোকজন জড়ো হয় তার বাড়িতে। এ সময় নজিরের মা নবিজন ও বাবা ইসমাইল হোসেন পালিয়ে যায়। পরে এলাকার লোকজন নজির হোসেনকে আটক করে বেঁধে থানায় খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে নজিরকে থানায় নিয়ে যায়। নিহত আনোয়ারা বেগমের দুই মেয়ে দুই ছেলে রয়েছে।

পরে নিহতের মা আবেদা বেওয়া বাদি হয়ে ফুলবাড়ি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। কাশিপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য খলিলুর রহমান নিউজনাউকে বলেন, পারিবারিক কলহকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। তার শাস্তি হওয়া উচিত।

ফুলবাড়ী থানার এএসআই হাবিবুর রহমান হাবিব নিউজনাউকে বলেন, স্বামী স্ত্রীর মাঝে দ্বন্দ্ব হওয়ায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ঘাতক স্বামীকে আটক করা হয়েছে। লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিউজনাউ/এসএ/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...