সিরাজগঞ্জে কমছে পানি,বাড়ছে দুর্ভোগ

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জে দ্বিতীয় দফায় টানা ৮ দিন অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ার পর দুইদিন ধরে ধীরগতিতে কমছে যমুনা নদীর পানি। যমুনার পানি কিছুটা কমলেও এখনও তা বিপৎসীমার অনেকে উপর দিয়েই প্রবাহিত হচ্ছে।

ফলে জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির কোনো উন্নতি না হওয়ায় নদ-নদীর অববাহিকার ৬টি
উপজেলা সিরাজগঞ্জ সদর,কাজিপুর,বেলকুচি,চৌহালী, শাহজাদপুর ও উল্লাপাড়ার বানভাসি পানিবন্দী ক্ষতিগ্রস্ত সোয়া দুই লক্ষ অসহায় মানুষদের দুর্ভোগ কমছে না।

 

পানিবন্দী মানুষদের বাড়ির ভিতর পানির স্রোত, ঘরের ভিতর থৈই থৈই পানি,মেঝেতে গর্ত, তার মধ্যেই আড়ার ওপর মাচা পেতে জিনিসপত্র রেখে ভয়, আতঙ্ক দুশ্চিন্তায়,শুকনো খাবার,বিশুদ্ধ পানি,শিশু খাদ্য,ওষুধপাতির সংকটে ,পয়ঃনিস্কাশনের চরম সমস্যায় মানবতার জীবন যাপন করছে তারা।

 

অনেকেই শিশু,বৃদ্ধিদের নিয়ে নৌকায় বাস করছে। তাদের অনেকেরই অভিযোগ,দুইবারের বানের পানিতে ঘর বাড়ি তলিয়ে গেলেও কেঁউ তাদের খোঁজ নিতে আসেনি।

তবে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সূত্র জানিয়েছে,বন্যা কবলিতদের জন্য ২৬৭ মেট্রিক টন চাল ও ৩ হাজার ৯৫০ প্যাকেট শুকনো খাবার বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী একেএম রফিকুল ইসলাম জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধের হার্ডপয়েন্টে যমুনার পানি ১৪ সেন্টিমিটার কমে রবিবার (১৯ জুলাই) সকাল ৬টায় বিপৎসীমার ৮৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয় এবং একই সময়ে উত্তরে কাজিপুর পয়েন্টে যমুনার নদীর পানি ১৪ সেন্টিমিটার কমে বিপৎসীমার ৯৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়।

 

অন্যদিকে যমুনার পানি কমার সাথে সাথে নদীতীরবর্তী এলাকার মানুষেরা নতুন করে ভাঙন আতঙ্কে নির্ঘুম রাত পার করছে। কাজিপুরের নিশ্চিন্তপুর,চরগিরিশ,তেকানি ও শুভগাছা ইউনিয়ন পরিষদের অফিসের ভিতর এখনও পানি রয়েছে।

 

চরাঞ্চলের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পানি প্রবেশ করেছে। বন্যার পানি ওঠায় বন্ধ হয়ে গেছে নিশ্চিতপুর,মনসুর নগর ও নাঠুয়ারপাড়া ১০ শয্যার মা ও শিশু কল্যাণ হাসাপাতাল ও চরাঞ্চলের ২৪টি কমিউনিটি ক্লিনিক। ফলে,ভেঙে পড়েছে স্বাস্থ্যসেবা। গরু ছাগলের খাদ্য সংগ্রহ করতে চরাঞ্চলের কৃষকেরা মরিয়া হয়ে উঠেছে।

চৌহালী ও এনায়েতপুরে বন্যার পানিতে ভেসে গেছে পুকুর ও জলাশয়ের মাছ।
দু’দফা বন্যায় সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে এক নির্মাণ শ্রমিক,চৌহালীতে এক শিশু ও উল্লাপাড়ায় দুই শিশু সহ মোট চারজনের পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে।
নিউজনাউ/এফএফ/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...