রাঙ্গামাটিতে করোনা মোকাবেলায় রাস্তা ফাঁকা

নন্দন দেবনাথ, রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি: করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় সরকারের ছুটি ঘোষণা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) সকাল থেকে রাঙ্গামাটির রাস্তা গুলোতে পুলিশের সরব উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। রাস্তায় তেমন লোকজন নেই বললেই চলে।

সকাল থেকে সেনা বাহিনীর উপস্থিতি টের পাওয়া না গেলেও সকাল ১০ টার দিকে ৪ টি মোবাইল টিমে ভাগ হয়ে সেনা বাহিনী রাঙ্গামাটির বিভিন্ন পাড়া, মহল্লায় টহল দিবে বলে জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের এনডিসি। সকাল থেকে বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পুলিশ ১ জনের বেশী দুই জন এক সাথে হাটতে দিচ্ছে না।

রাঙ্গামাটি জেলা শহরকে লক ডাউন না করলেও রাঙ্গামাটি শহরের একমাত্র গণ পরিবহন সিএনজি অটোরিক্সা বন্ধ থাকায় রাঙ্গামাটি কার্যত লকডাউন হয়ে গেছে। প্রয়োজনে দুই একজন মোটর সাইকেল নিয়ে ঘরের বাইরে বের হচ্ছে।

তবে রাঙ্গামাটি শহরের রিজার্ভ বাজার সহ বেশ কিছু এলাকায় শ্রমজীবী মানুষেরা কাজে যোগ দিতে দেখা গেছে। তাই এ সব এলাকায় প্রশাসনের মোবাইল টিমের উপস্থিতি নিশ্চিত করার দাবী জানিয়েছে সচেতন মহল।

কয়েকজন শ্রমজীবী মানুষের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, কোম্পানি মাল নিয়ে এসেছে তাদের মালামাল ট্রাক থেকে আনলোড করতে হবে। মালামাল আনলোড না করলে ব্যবসায়ীরা বিক্রি করতে পারবে না। তাই আমাদের কাজে যোগ দিতে হয়েছে।

এদিকে রাঙ্গামাটি জেলা শহরের প্রধান শ্রমজীবীর অবস্থান হচ্ছে ফিসারি ঘাটে। রাঙ্গামাটি ফিসারি ঘাটে মাছের লোড আনলোড বন্ধ না হওয়ায় কাজে যোগ দিয়েছে রাঙ্গামাটির শত শত শ্রমজীবী মানুষ। সরকারের ঘোষণা থাকলেও ফিসারি বন্ধ দেয়ায় রাঙ্গামাটির বিভিন্ন এলাকার বিশাল একটি অংশ এই ফিসারিতে অবস্থান করে একে অন্যের সাথে গায়ে গালা লাগিয়ে চলাচল করতে দেখা গেছে।

এই বিষয়ে ফিসারিতে চাকুরী করা কয়েকজন বলেন, জেলেদের মাছ ধরা বন্ধ হয়নি। প্রতিদিনই মাস আসছে বিভিন্ন উপজেলা থেকে তাই মাছ গুলো প্যাকেজিং ও ট্রাকে লোড করে ঢাকায় নিয়ে যেতে আমাদের কাজ করতে হচ্ছে। ফিসারি বন্ধ ঘোষণা করলে আমরা কাজ বন্ধ করে দিবো।

এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাদের কাউকে পাওয়া যায়নি।

নিউজনাউ/টিএন/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ