বাগেরহাটে শহরে ঘরবন্দি মানুষ, উল্টো গ্রামীণ জনপদ

বাগেরহাট প্রতিনিধি:
বাগেরহাটে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে শনিবার (২৮ মার্চ) তৃতীয় দিনের মতো শহরগুলোর সকল দোকানপাট বন্ধ রয়েছে।

বাগেরহাট শহরসহ উপজেলাগুলোতে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও পুলিশের কড়া নজরদারীর মধ্যে রাস্তাঘাট ফাঁকা হয়ে গেছে।

বন্ধ রয়েছে সব ধরণের দোকানপাট। শুধু খোলা রয়েছে ওষুধ, জ্বালানী, মুদি, তরি তরকারীর ও মাছের দোকান। এসব দোকানে দড়ি বা ফিতা দিয়ে সামাজিক নিরাপত্তা দূরত্ব তৈরি করা হয়েছে। মাস্ক ছাড়া লোকজন তেমন একটা বের হচ্ছেন না।

তবে এর উল্টো চিত্র হচ্ছে গ্রামীণ জনপদে। সেখানে সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ছোট-ছোট বাজার, মোড়ে-মোড়ে চায়ের দোকানগুলোতে মানুষের জটলা লেগেই রয়েছে।

বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় জানান, জেলা ও উপজেলা শহরগুলোতে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও পুলিশের কড়া নজরদারীর মধ্যে ঘরে রাখা সম্ভব হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘কিছু কিছু গ্রামের লোকজন এখনো বাড়ী থেকে বের হয়ে স্থানীয় বাজারের চায়ের দোকানে আড্ডা দিচ্ছেন বলে খবর পাওয়ার সাথে-সাথেই আমরা সেখানে অভিযান চালাচ্ছি।’

পংকজ চন্দ্র রায় বলেন, কান্দাপাড়া বাজারসহ বেশ কয়েটি গ্রামের লোকজনকে বাড়ীতে পাঠানো হয়েছে। তাদের ঘরের ভেতরে রাখতে প্রশাসন কাজ করছে।

নিউজনাউ/এফএফ/এবি/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...