ধর্ষণের মামলা না নেওয়ায় কাফনের কাপড় পরে প্রতিবাদ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ মামলা নিচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেছে শিক্ষার্থীর পরিবার।

এদিকে ওই মাদ্রাসা ছাত্রীর পরিবার ন্যায় বিচারের দাবিতে শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) ভুক্তভোগীর পরিবার দুপুরে রূপগঞ্জ প্রেস ক্লাব কার্যালয়ের সামনে কাফনের কাপড় পড়ে এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে।

ভুক্তভোগীর পরিবারের অভিযোগ, ঘটনার শিকার ওই শিক্ষার্থী স্থানীয় একটি মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। গত দেড় বছর আগে উপজেলার দক্ষিণ কেরাব এলাকার কবির হোসেনের ছেলে ইব্রাহিম মিয়া বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এক বছর ধরে ইব্রাহিম মিয়া বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে প্রতিনিয়ত শারীরিক সম্পর্ক করতেন।

বেশ কিছুদিন ধরে ওই শিক্ষার্থী তাকে বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করলে ইব্রাহিম মিয়া বিভিন্ন টালবাহানা শুরু করেন। ওই শিক্ষার্থী ইব্রাহিম মিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিলে তাকে হুমকি-ধমকি দিতে থাকেন। পরে ১৯ এপ্রিল রাতে ইব্রাহিম মিয়া শিক্ষার্থীকে তার বাড়ির পাশে দেখা করতে বলেন। ওই শিক্ষার্থী কথামতো বাড়ির পাশে নির্জন স্থানে দেখা করতে গেলে ইব্রাহিম মিয়া তাকে ধর্ষণ করেন। ওইদিন রাতে ছাত্রীর পরিবার বিষয়টি ইব্রাহিমের বাবা মাকে জানালে তারা হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেন।

ভুক্তভোগীর পরিবার অভিযোগ করে আরও জানান, গত ২০ এপ্রিল ওই ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী নিজে বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় কাঞ্চন পৌরসভার দক্ষিণ কেরাব এলাকায় কবির হোসেনের ছেলে ইব্রাহিম মিয়ার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেন। কিন্তু পুলিশ মামলা নেননি। উল্টো ভুক্তভোগীর পরিবারকে প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে অভিযুক্ত ইব্রাহিম ও তার পরিবার।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহামুদুল হাসান বলেন, অভিযুক্ত ইব্রাহীমের সাথে প্রায় এক বছর যাবত প্রেম রয়েছে এবং তাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে বলে মেয়ে নিজেই স্বীকার করেছে। দুই পরিবারের মধ্যে বিয়ের ব্যাপারেও কথা হয়েছে বলে শুনেছি। তবে ছেলে বিয়ে করতে রাজি হয়ে সময় চাওয়ায় মেয়ে পক্ষ ধর্ষণের অভিযোগ দিয়েছে।

ওসি আরো বলেন, আমরা মামলা গ্রহণ করে বিষয়টি তদন্ত করছি। আমরা যতো দ্রুত সম্ভব মেয়ের মেডিকেল টেস্ট করাব। যদি ধর্ষণের প্রমাণ পাওয়া যায় তবে অভিযুক্ত ছেলের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেব।

নিউজনাউ/এফএফ/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...