alo
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

'কর্মী খুঁজতে' গিয়ে চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের মারামারি

প্রকাশিত: ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৩:৩৮ পিএম

'কর্মী খুঁজতে' গিয়ে চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের মারামারি
alo

 

চট্টগ্রাম ব্যুরো: শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারিতে রক্তাক্ত হয়েছে চট্টগ্রাম কলেজ ক্যাম্পাস। এসময় উভয় গ্রুপের ১০ জন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষে জাড়ানোরা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক গ্রুপের অনুসারীরা। তারা উভয়ই আবার শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলের অনুসারী।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় কলেজের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক মোছাম্মৎ নাজজমা বেগমের কক্ষটিও ভাংচুর করেন কলেজ ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা।

জানা যায়, সকালে কলেজের ইতিহাস বিভাগে কর্মী সংগ্রহের জন্য জুনিয়রদের কাছে যান কলেজটির ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুল করিমের অনুসারীরা। এসময় সাধারন সম্পাদক সুভাষ মল্লিক সবুজের অনুসারীরার ইতিহাস বিভাগে কর্মী সংগ্রহ করছিলেন। হঠাৎ দুই পক্ষের নেতাকর্মীদদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। যা পরে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে রুপ নেয়। এসময় উভয় পক্ষেই ইট-পাটকেল ছুঁড়তে থাকেন। এতে উভয় গ্রুপের অন্তত ১০ জন আহত হয়।

আহতদের মধ্যে গনিত বিভাগের অর্নাস শেষ বর্ষের ছাত্র সাফায়েত হোসেন রাজু আর অর্ণব দেব, সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র মোস্তফা আমান, ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের মেহেরাজ হোসেন পাভেল ও দ্বাদশ শ্রেনীর রাফসান ও জিসান। তারা প্রত্যকে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুল করিমের অনুসারী।

অন্যদিকে সাধারন সম্পাদক সুভাষ মল্লিক সবুজের অনুসারীদের মধ্যে জিয়া উদ্দীন আরমানসহ মোট চার কর্মী আহত হওয়ার দাবী করেন সবুজ।

ঘটনার পর কলেজে অবস্থান নেয় চকবাজার থানা পুলিশ। এসময় উভয় গ্রুপের কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়।

এবিষয়ে চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মঞ্জুর কাদের মজুমদার বলেন, কর্মী সংগ্রহ করতে গিয়ে সভাপতি-সাধারন সম্পাদক গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে ৪-৫ জন আহত হয়েছেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আছে।

ঘটনার বিষয়ে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুল করিম বলেন, কলেজে সিনিয়র-জুনিয়রের বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়েছে। গ্রুপ পর্যায়ের কোন ঘটনা নয়। কেউ হতাহতও হয়নি। এখন ক্যাম্পাস শান্ত রয়েছে।

অন্যদিকে সাধারন সম্পাদক সুভাষ মল্লিক সবুজ বলেন, সকালবেলা  ইতিহাস বিভাগের ক্লাসে গেলে মাহমুদের সমর্থকরা আমাদের কর্মীদের উপর হামলা করে মাথা ফাঁটিয়ে দেয়। এই ঘটনায় নিজের চার কর্মী আহত হওয়ার কথাও জানান সবুজ।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২২

X