alo
ঢাকা, মঙ্গলবার, অক্টোবর ৪, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চবিতে মধ্যরাতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, হলে ভাংচুর

প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৭:২৮ পিএম

চবিতে মধ্যরাতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, হলে ভাংচুর
alo

চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ হলের রুম দখলকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই উপগ্রুপের মধ্যে মারামারিতে পাঁচজন আহত হয়েছেন। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ আব্দুর রব হলের ছয়টি কক্ষ ভাংচুর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাত ১ টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। এতে আহতরা হলেন- ফারসি বিভগের ইসমাইল হোসেন, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের দিপু রায়হান, রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের আকরাম হোসেন, ইতিহাস বিভাগের আরমান হোসেন ও শাহিনুল আলম মুন্না।

জানা গেছে, শহীদ আবদুর রব হলের ১১৯ নম্বর কক্ষ দখলকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ চলছে। এ নিয়ে কথা কাটাকাটি ও মারামারি হয় উভয়পক্ষের মধ্যে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ৫ জন আহত হয়েছেন।  

শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও একাকার গ্রুপের নেতা মইনুল ইসলাম রাসেল বলেন, ১১৯ নম্বর কক্ষ আমাদের। কিন্তু তারা কক্ষটি নিজেদের দাবি করায় এ নিয়ে আগে থেকে ঝামেলা চলছিল। গতকাল আমাদের মিটিং ছিল। মিটিং শেষে আমরা চলে আসি। কিন্তু বাংলার মুখের অনুসারীরা আমাদের কর্মীদের উসকানিমূলক কথা বলে। সেখান থেকেই কথা কাটাকাটি এবং মারামারির সূত্রপাত হয়। এসময় তারা বহিরাগতদের এনে রুম ভাংচুর করে। আমাদের একজন আহত হয়েছে।

শাখা ছাত্রলীগের আরেক সহ-সভাপতি ও বাংলার মুখ গ্রুপের নেতা আবু বকর তোহা বলেন, একাকার গ্রুপ বহিরাগত ছেলেদের এনে হলের গেস্টরুমে মিটিং করছিল। আমাদের জুনিয়ররা তাদের ব্যাগে ইট পাটকেল আছে বলে সন্দেহ করে। আমাকে বিষয়টি জানানোর পর একাকার গ্রুপের নেতা মইনুল ইসলাম রাসেলকে মিটিং শেষে আমার সঙ্গে দেখা করতে বলি। কিন্তু সে দেখা না করে চলে যায়। মিটিং শেষে একাকারের অনুসারীরা এবং বহিরাগতরা ১১৯ নম্বর কক্ষ ভাংচুর করে। এছাড়া আশপাশের আরও ৪-৫টি কক্ষ ভাঙচুর করে তারা।  

প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, মারামারির খবর পেয়ে প্রক্টরিয়াল বডি ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। এ ঘটনায় ৫ জন আহত হয়েছে। আমরা এ ঘটনার তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।

নিউজনাউ/একে/২০২২

 

X