স্বামীর খোঁজে চট্টগ্রামে এসে ধর্ষিত

চট্টগ্রাম ব্যুরো : স্বামীর খোঁজ পাইয়ে দেবেন বলে কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রামে এনে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে মনির (৩২) নামের এক যুবককে। ধর্ষণের পর মারধর করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অপরাধে তার আরো তিন সহযোগিকেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, স্বামীর সাথে লালখান বাজারে মতিঝর্ণা এলাকায় থাকতো ভিটকিম। মাসখানেক আগে তারা কুমিল্লায় নিজ বাড়িতে চলে যায়।সেখানে পারিবারিক কলহে ঘর ছেড়ে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় স্বামী। পরে স্বামীর খোঁজ এবং মিলমিশ করে দেয়ার নাম করে ফোনে ওই গৃহবধূকে কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রামে ডেকে আনেন এলাকায় তাদের পূর্বপরিচিত মনির।

এরপর শুক্রবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামে আসলে রাতে ওই গৃহবধূকে নিজের বাসায় নিয়ে যান মনির। পরদিন সকালে নিজের স্ত্রী চাকরিতে গেলে খালি বাসায় মনির ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে বলে পুলিশকে জানায় ভিকটিম।

খুলশী থানার ওসি মো. শাহীনুজ্জামান নিউজনাউকে বলেন, সকালে ভিকটিমের গলায় ছুরি ধরে ধর্ষণ করেরে মনির। হয়। এরপর সে স্বামীর খোঁজে বের হয়ে যায়। বেলা বারোটার দিকে বোরকা আনতে ঐ বাসায় আবার গেলে মনির তার সহযোগিদের খবর দেয়। এসময় তারা মনিরের সাথে তার বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। মনিরের ৬-৭টি বিয়ের জনশ্রুতি আছে এলাকায়।

ওসি বলেন, ভিকটিম রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর করে তার সাথে থাকা টাকা ছিনিয়ে নেয় অন্যরা। এরপর ভিকটিম থানায় ৮ জনের নামে মামলা করলে আমরা এঘটনার প্রধান আসামি মনিরকে গত রাত সোয়া ১১টার দিকে ডবলমুরিং এলাকা থেকে গেপ্তার করি। তার বাসায় অস্ত্র পাওয়া গিয়েছে।

আর ভোরের দিকে লালখান বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাসুদ, দিদার ও সোহেলকে গ্রেপ্তার করা হয়।মনিরের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনেও একটি মামলা করা হবে বলে জানান ওসি শাহীনুজ্জামান।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
Loading...