সার্ভেইল্যান্স কমিটি থেকে বাদ ডা. ফয়সাল

নৈপথ্যে বেসরকারি হাসপাতালের স্বেচ্ছাচারিতা

চট্টগ্রাম ব্যুরো: সরকারি নির্দেশনার পরও চট্টগ্রামে বেসরকারি হাসপাতাল গুলোর অনিয়ম মনিটরিংয়ে ঘটিত সার্ভেইল্যান্স কমিটি থেকে বাদ দেওয়া হল বিতর্কিত চিকিৎসক নেতা ডা. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরীকে। কমিটি গঠনের পাঁচদিনের মাথায় সর্বমহলের তীব্র সমালোচনার পর নেওয়া হল এই সিদ্ধান্ত। তবে কমিটিতে বহাল আছেন আরেক বিতর্কিত বেসরকারি হাসপাতাল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ডা. লিয়াকত আলী।

সরকারের কঠোর নির্দেশনার পরও চট্টগ্রামে রোগী ফেরত দেওয়ার ঘটনা ঘটছে নিয়মিত। এইসময় বেসরকারি হাসপাতাল গুলোর হয়ে বিভিন্ন জায়গায় সাইফ গাইতেন ডা. ফয়সাল ইকবাল ও ডা. লিয়াকত আলী। তাই চট্টগ্রামে বেসরকারি হাসপাতাল গুলোর এমন স্বেচ্ছাচারিতার জন্য এই দুইজনকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হচ্ছিলো বিভিন্ন মহল থেকে।

ডা. ফয়সল ইকবাল চৌধুরীকে সার্ভেইল্যান্স কমিটি থেকে বাদ দেওয়ার বিষয়টি নিউজনাউকে নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ। জানা গেছে, ডা. ফয়সালকে পরিবর্তে কমিটিতে রাখা হয়েছে চট্টগ্রাম বিএমএর সভাপতি ডা. মুজিবুল হক খানকে।

এ প্রসঙ্গে সার্ভেইল্যান্স টিমের আহ্বায়ক চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান নিউজনাউকে বলেন, ‘চট্টগ্রামে চিকিৎসা নিয়ে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। মানুষের সেবা নিশ্চিতে আমাদের এই টিম গঠন করা হয়েছে। আমরা এরই মধ্যে ২০টি হাসপাতালকে নোটিশ ইস্যু করেছি। টিম পুনর্গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক এর পরিবর্তে এখন বিএমএ’র সভাপতিকে রাখা হয়েছে।

এর আগে গত ৩০ মে চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকের মালিকদের সঙ্গে বৈঠকে চিকিৎসা সেবা মনিটরিংয়ের জন্য সার্ভেইল্যান্স টিম গঠন করা হয়। এই টিমের প্রধান করা হয়েছে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমানকে।

কমিটির অন্যান্য সদ্যরা হলেন- চট্টগ্রামের বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য), জেলা সিভিল সার্জন, সিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর), অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের (বিএমএ) চট্টগ্রামের সভাপতি ও প্রাইভেট হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার এসোসিয়েশন চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক।

নিউজনাউ/পিপিএন

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
Loading...