করোনাভাইরাস: অবশেষে কি ওষুধ পাওয়া গেলো !

নিউজনাউ ডেস্ক :
এটা অত্যন্ত গুরুত্তপুর্ন একটি খবর। Le Paris Theke কখনওই গুজব ছড়ায় না। এবং যেই পর্যন্ত ওই নিউজের দালিলিক প্রমাণ না পাওয়া যায় তা অনুবাদ করে প্রকাশ করে না। তেমনি আজ আপনাদের একটি নিউজ পোস্ট করছি আর তা হলো করোনা ভাইরাসের জন্য ঔষুধ যার জন্য সারা দুনিয়া অপেক্ষা করছে।
ঔষুধের নাম ক্লোরোকুইন বা la chloroquine। গবেষকরা আশা এবং সাবধান দুইটির মধ্যেই আছে। ফ্রান্সের দক্ষিণে অবস্থিত মার্সাই (Marseille) এর ডাক্তাররা ইতিমধ্যে সফল ভাবে এই ঔষুধ ব্যাবহার করে আসছে। এই ভাইরাসে ইতিমধ্যে সারা দুনিয়াতে ১২০০০ এর উপর লোক মারা গেছে। এই ঔষুধ আসার আলো দেখাচ্ছে। এটা নতুন কোনো আবিষ্কার নয়। গত ৭০ বছর যাবৎ এই ঔষুধ ম্যালেরিয়া নির্মূলের কার্যকরি ভূমিকা রাখছে। এক মাস আগে মার্সাই (Marseille) এর গবেষকরা কিছু করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর উপর এই ওষুধ প্রয়োগ করে এবং সফল হয়। এই আইডিয়ার মুলে যিনি আছেন তিনি হলেন Professeur Didier Raoult যিনি Institut Hospitalo-Universitaire de Marseille তে পরিচালক হিসাবে কর্মরত। তিনি বলেন, “আমি খুব আশ্চর্যজনক ফল পেয়েছি। ৬ দিনে ৪ ভাগের ৩ ভাগ রোগীর শরীর থেকে করোনা ভাইরাস চলে গেছিলো। এই ঔষুধ বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়ার আভ্যন্তরীণ – কোষ পর্যন্ত আঘাত করতে সক্ষম (মেডিক্যাল টার্ম, ঠিক মত অনুবাদ নাও হতে পারে) এবং তা অনেকদিন ধরে প্রয়োগ হচ্ছে। তবে এর সফল প্রয়োগের জন্য আরো কিছুদিন সময় দরকার। কারণ la chloroquine হার্টে সমস্যা হয় কিনা তা নিশ্চিত হতে হবে।
ইতিমধ্যে Nice এর মেয়র Estrosi তার এলাকায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের উপর la chloroquine প্রয়োগ করতে ইচ্ছুক। তবে সিদ্দান্ত নির্ভর করে রোগীদের আত্মীয় স্বজনদের উপর। মেয়র নিজেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। এই ঔষুধের প্রয়োগের পর তিনি এখন অনেকটাই সুস্থ। তিনি Nice এর CHU (মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল) কে ইতিমধ্যে যাবতীয় ব্যাবস্থা নিতে অনুরোধ করেছেন। যদিও এখন পর্যন্ত সরকারের অনুমোদন দেয়নি।

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...