না’গঞ্জে ল্যাবএইডের নমুনা সংগ্রহে প্রতারণা, কার্যক্রম বন্ধ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: বেসরকারি হাসপাতাল ল্যাবএইডের নারায়ণগঞ্জ শাখায় করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহে অনিয়ম ও রোগীদের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে উঠেছে।

ঘটনার সত্যতা পেয়ে এরইমধ্যে ল্যাবএইডের এই শাখায় করোনা নমুনা সংগ্রহ কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ। মঙ্গলবার (২১ জুলাই) সন্ধ্যায় সিভিল সার্জন অফিস থেকে ল্যাবএইড নারায়ণগঞ্জ শাখাকে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ বন্ধ রাখতে চিঠি দেওয়া হয়।

জানা যায়, করোনার নমুনা পরীক্ষায় জন্য সার্ভিস চার্জসহ সাড়ে ৪ হাজার টাকা আদায় করতো ল্যাবএইড কর্তৃপক্ষ। বাড়িতে এসে নমুনা সংগ্রহের কথা থাকলেও বুথে এসে নমুনা দিতে হতো রোগীদের। এই বিষয়ে অভিযোগ এলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেন জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়ক সংলগ্ন নবনির্মিত সিজিএম (চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট) ভবনের নিচ তলায় সরকারি বুথে নিজেদের নমুনা সংগ্রহ করতো ল্যাবএইড কর্তৃপক্ষ। যেখানে টেকনিশিয়ানের দায়িত্ব পালন করতেন জনি নামের এক ব্যক্তি। মঙ্গলবার (২১ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জনির দায়িত্ব না থাকলেও জনি বুথে উপস্থিত হন এবং ল্যাবএইড থেকে কোনো রোগী এসেছে কিনা জানতে চাইলে এক যুবক তার সামনে এসে ল্যাবএইড থেকে আনা রশিদ তার কাছে জমা দিলে তিনি তাৎক্ষণিক ওই রোগীর নমুনা সংগ্রহের ব্যবস্থা করেন।

জেলা সিভিল সার্জন অফিসে এই তথ্য পৌছালে সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমিতিয়াজ জেলার করোনা ফোকাল পার্সন ডা. জাহিদুল ইসলামকে সাথে নিয়ে কালিরবাজার বুথে গিয়ে অনিয়মের সত্যতা পান। এরপর জেলা স্বাস্থ বিভাগের এই কর্মকর্তারা চাষাড়ায় ল্যাবএইডের নারায়ণগঞ্জ শাখায় অভিযান পরিচালনা করেন।

পরে মুঠোফোনে জেলার করোনা ফোকাল পার্সন ডা. জাহিদুল ইসলাম ভুক্তভোগী এক রোগী জাহিদুল ইসলাম জানান, সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাং রোড এলাকার বাসিন্ধা তিনি। সাড়ে চার হাজার দিয়েছেন নমুনা পরীক্ষার জন্য। বর্তমান সি‌জিএম কোর্ট ভব‌নের নিচ তলায় স্থা‌পিত সরকা‌রি নমুনা সংগ্রহ কে‌ন্দ্রে গিয়ে তাকে নমুনা দিতে বলে ল্যাবএইড কর্তৃপক্ষ।

এই ঘটনায় জনি ও রিপনকে বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ল্যাবএইডের নারায়ণগঞ্জ শাখার ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ সোহেল। তিনি বলেন, ’সিভিল সার্জনের নির্দেশে নমুনা সংগ্রহ বন্ধ রাখা হয়েছে আমাদের। ওই দুইজন আমাদের অগোচরে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি।’

এ বিষয়ে সিভিল সার্জন ডা. ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, ল্যাবএইড নারায়ণগঞ্জ শাখাকে করোনার নমুনা সংগ্রহ বন্ধের জন্য চিঠি দেয়া হয়েছে। সরকারি আদেশ অমান্য করে কোন অনিয়ম হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...