alo
ঢাকা, বুধবার, মার্চ ২২, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ৮ চৈত্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নতুন বছরে মায়ের ভাষায় লেখা বই পেলো পাহাড়ী ছেলে-মেয়েরা

প্রকাশিত: ০১ জানুয়ারী, ২০২৩, ০৮:০৮ পিএম

নতুন বছরে মায়ের ভাষায় লেখা বই পেলো পাহাড়ী ছেলে-মেয়েরা
alo

রাঙামাটি ব্যুরো: বছরের প্রথমদিনেই শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হলো নতুন পাঠ্যবই। এই বই উৎসবে সারাদেশের তুলনায় পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটিতে বই বিতরণে দেখা গেছে ভিন্ন মাত্রা। ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া রোধে প্রাক-প্রাথমিক থেকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের হাতে দেওয়া হলো নিজ মাতৃভাষার বই।

সাধারণ বইয়ের সঙ্গে নিজ ভাষার বই হাতে পেয়ে খুশি পাহাড়ের শিশুরা। ২০১৭ সাল থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামে বসবাসরত চাকমা, মারমা ত্রিপুরা ভাষাভাষী শিশুরা প্রাক-প্রাথমিকে বই পায়।

রোববার ( জানুয়ারি) পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটির বিভিন্ন স্কুলে এই পাঠ্যবই বিতরণ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

নিজ মাতৃভাষায় বই পাওয়া হৃদয় চাকমা বললো, আমি নতুন বই পেয়েছি। চাকমা ভাষায় আমি পড়ালেখা করতে পারবো।

রুপা ত্রিপুরা বললো, আমি আমার ভাষায় পড়ালেখা করবো। পড়তে আমার কোনো অসুবিধা হবে না।

বই বিতরণ অনুষ্ঠানে মাতৃভাষায় পাঠদানের জন্য শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ অব্যাহত আছে বলে জানালেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুই প্রু চৌধুরী। তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের প্রতি বছরের মতো এবছরও নিজ মাতৃভাষার বই বিতরণ করা হচ্ছে। এতে করে এই জাতি সত্ত্বার শিক্ষার্থীরাও নিজ মাতৃভাষা শেখার সুযোগ পাচ্ছে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ডিপিইও) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ২০১৭ সাল থেকে চাকমা, মারমা, ত্রিপুরা, গারো, এবং সাদ্রি এই পাঁচ ভাষায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিশুদের মাতৃভাষায় পড়াশোনার জন্য বই বিতরণ করে আসছে সরকার। এবছর পার্বত্য রাঙ্গামাটির প্রায় ৬৭ হাজার শিক্ষার্থী তাদের মাতৃভাষায় বই পাচ্ছে।

নিউজনাউ/জেআর/২০২৩

X