alo
ঢাকা, রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ব্যাংকে টাকা নেই গুজবের প্রচার চালাচ্ছে ষড়যন্ত্রকারীরা

প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর, ২০২২, ০৯:০৮ এএম

ব্যাংকে টাকা নেই গুজবের প্রচার চালাচ্ছে ষড়যন্ত্রকারীরা
alo


নিউজনাউ ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে গুজব ছড়িয়েছে দেশের ব্যাংকে কোন টাকা নেই। এমতাবস্থায় গ্রাহকরা ব্যাংক থেকে টাকা তুলে নিচ্ছেন। এমনকি ব্যাংক থেকে টাকা তোলার জন্য হুড়াহুড়ি লেগেছে বলেও সামাজিক মাধ্যমগুলোতে বিভ্রান্তিকর নানা তথ্য ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। 

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংক, অর্থনীতিবিদ ও ব্যাংকাররা স্পষ্ট বলছেন, এসব তথ্যের কোনো ভিত্তি নেই। সবই গুজব।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গত ১৪ নভেম্বরের তথ্য মতে, ‘ব্যাংক ব্যবস্থায় বর্তমানে এক লাখ ৬৯ হাজার ৫৮৬ কোটি টাকার অতিরিক্ত তারল্য রয়েছে। ব্যাংক খাতে নগদ অর্থের সংকট বা তারল্য সংকট নেই।’

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশের ব্যাংক খাত নিয়ে নানা ধরনের ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। দেশের বাইরে অবস্থান করে কতিপয় ব্যক্তি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই অপপ্রচার চালাচ্ছে। দেশের ভেতরেও কিছু মানুষ এর সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন। এসব ব্যক্তি আগেও বাংলাদেশ নিয়ে, সরকারকে নিয়ে নানা ধরনের ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা খবর ছড়িয়েছে।

ব্যাংক খাত-সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ‘বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা হবে’ বলে এত দিন গুজব ছড়িয়ে যারা ব্যর্থ হয়েছে, তারাই এখন ‘ব্যাংকে টাকা নেই, আমানত তুলে নিচ্ছে মানুষ’ বলে অপপ্রচার করছে। দীর্ঘদিন থেকে ছড়ানো গুজব অনুযায়ী বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা হয়নি।

ব্যাংক খাত-সংশ্লিষ্টরা বলছেন, মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়াতে ফ্রান্স, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশে বসে বেশ কয়েকজন ব্যক্তি অর্থনীতি নিয়ে কল্পিত সব তথ্য ফেসবুক, ইউটিউবসহ নানা মাধ্যমে প্রকাশ করছেন। দেশে বসে অনেকেই সেই গুজবে আগুন ঢালছেন। আর বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতারা সেই সব গুজবের তথ্য বক্তৃতা-বিবৃতির মাধ্যমে রাজনীতির মাঠ উত্তপ্ত করার চেষ্টা করছেন বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদ ও ব্যাংকাররা।

নিউজনাউ/আরবি/২০২২

X