alo
ঢাকা, মঙ্গলবার, অক্টোবর ৪, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য: কারা আছেন, কারা নেই

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৭:১৩ পিএম

দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য: কারা আছেন, কারা নেই
alo

নিউজনাউ ডেস্ক: প্রয়াত ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্যের অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে। এতে অংশ নিচ্ছেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, বিভিন্ন সংস্থার প্রধান, রাজপরিবারের সদস্যসহ প্রায় দুই হাজার অতিথি।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক রানির শেষকৃত্যে অংশ নিয়েছেন কে কে-

রাজপরিবারের সদস্য

বেলজিয়ামের রাজা ফিলিপ ও রানি ম্যাথিল্ডে
ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগেল ওয়াংচুক
ব্রুনাইয়ের সুলতান হাসানাল বলকিয়াহ
ডেনমার্কের রানি দ্বিতীয় মার্গ্রেথ, ক্রাউন প্রিন্স ফ্রেডেরিক ও ক্রাউন প্রিন্সেস মেরি
জাপানের সম্রাট নারুহিতো ও সম্রাজ্ঞী মাসাকো
জর্ডানের রাজা আবদুল্লাহ ও রানি রানিয়া
কুয়েতের ক্রাউন প্রিন্স শেখ মেশাল আল-আহমদ আল-সাবাহ
লেসোথোর রাজা তৃতীয় লেটসি
লিচেনস্টাইনের প্রিন্স অ্যালোইস
লুক্সেমবার্গের গ্র্যান্ড ডিউক হেনরি
মালয়েশিয়ার সুলতান আবদুল্লাহ
মোনাকোর প্রিন্স দ্বিতীয় আলবার্ট
মরক্কোর ক্রাউন প্রিন্স মৌলে হাসান
নেদারল্যান্ডের রাজা উইলেম-আলেকজান্ডার ও রানি ম্যাক্সিমা
নরওয়ের রাজা পঞ্চম হ্যারাল্ড ও রানি সোনজা
ওমানের সুলতান হাইথাম বিন তারিক আল সাইদ
কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি
সৌদি আরবের যুবরাজ তুর্কি বিন মোহাম্মদ আল সৌদ
স্পেনের রাজা ষষ্ঠ ফিলিপ ও রানি লেটিজিয়া
স্পেনের সাবেক রাজা জুয়ান কার্লোস ও সাবেক রানি সোফিয়া
সুইডেনের রাজা ষোড়শ কার্ল গুস্তাফ ও রানি সিলভিয়া
টোঙ্গার রাজা ষষ্ঠ টুপাউ
সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট ও আবুধাবির শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান
সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী ও দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম

বিশ্বনেতাদের মধ্যে কে কে আছেন

আমেরিকা

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন
কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো
ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনারো
বার্বাডোজের প্রেসিডেন্ট সান্দ্রা ম্যাসন
বেলিজের গভর্নর-জেনারেল ফ্লয়লা জালাম
জ্যামাইকার প্রধানমন্ত্রী অ্যান্ড্রু হলনেস
সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইনসের গভর্নর-জেনারেল সুসান ডুগান
ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর প্রেসিডেন্ট পলা-মাই উইকস

ইউরোপ

অস্ট্রিয়ার প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার ভ্যান ডার বেলেন
সাইপ্রাসের প্রেসিডেন্ট নিকোস আনাস্তাসিয়াদেস
ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ফন ডার লেইন
ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মিশেল
ফিনল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট সাউলি নিনিসটো
ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ
জার্মানির প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক-ওয়াল্টার স্টেইনমায়ার
গ্রিসের প্রেসিডেন্ট কাতেরিনা সাকেলারোপলু
হাঙ্গেরির প্রেসিডেন্ট কাতালিন নোভাক
আয়ারল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট মাইকেল ডি হিগিন্স
আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মাইকেল মার্টিন
ইতালির প্রেসিডেন্ট সার্জিও মাতারেলা
লাটভিয়ার প্রেসিডেন্ট এগিলস লেভিটস
লিথুয়ানিয়ার প্রেসিডেন্ট জিপসি সিক
মাল্টার প্রেসিডেন্ট জর্জ ভেলা
ন্যাটোর মহাসচিব জেনস স্টলটেনবার্গ
পোল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেজ দুদা
পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট মার্সেলো রেবেলো ডি সুসা
ইউক্রেনের ফার্স্ট লেডি ওলেনা জেলেনস্কা
ভ্যাটিকানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আর্চবিশপ পল রিচার্ড গ্যালাঘের

মধ্যপ্রাচ্য

মিসরের প্রধানমন্ত্রী মোস্তফা মাদবৌলি
ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শাতায়েহ
ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট আইজ্যাক হারজগ
সৌদি আরবের প্রতিমন্ত্রী প্রিন্স তুর্কি বিন মোহাম্মদ আল-সৌদ। ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানও রানির শেষকৃত্যে যোগ দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

আফ্রিকা

গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র কঙ্গোর ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টোফ এমবোসো এনকোডিয়া
গ্যাবনের প্রেসিডেন্ট আলী বঙ্গো
ঘানার প্রেসিডেন্ট নানা আকুফো-আদ্দো
কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট উইলিয়াম রুটো
নাইজেরিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট ইয়েমি ওসিনবাজো
রুয়ান্ডার প্রেসিডেন্ট পল কাগামে
সেনেগালের প্রেসিডেন্ট ম্যাকি হল
দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা
সুদানের সামরিক নেতা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান,

এশিয়া

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
ভারতের প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ
শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহে

এশিয়া প্যাসিফিক

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যান্টনি আলবানিজ
নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন
চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াং কিশান
সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট হালিমা ইয়াকুব
দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইউন সুক-ইওল
কুক দ্বীপপুঞ্জের প্রধানমন্ত্রী মার্ক ব্রাউন
ফিজির প্রধানমন্ত্রী ফ্রাঙ্ক বাইনিমারামা
পাপুয়া নিউ গিনির প্রধানমন্ত্রী জেমস মারাপে
সামোয়া রাজ্যপ্রধান দ্বিতীয় সুয়ালউভি
টুভালুর প্রধানমন্ত্রী কাউসিয়া নাতানো
সলোমন দ্বীপপুঞ্জের গভর্নর-জেনারেল ডেভিড ভুনাগি

আমন্ত্রণ পায়নি যারা

যেসব দেশের সঙ্গে যুক্তরাজ্যের পূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে, কেবল সেসব দেশের রাষ্ট্রপ্রধান অথবা রাষ্ট্রদূত পর্যায়ের কোনো প্রতিনিধিকেই আমন্ত্রণ জানিয়েছে ব্রিটিশ সরকার।

লন্ডনের সঙ্গে স্বাভাবিক কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই বলে সিরিয়া ও ভেনিজুয়েলাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ থাকায় রাশিয়া, বেলারুশ ও মিয়ানমারের প্রতিনিধিদেরও আমন্ত্রণ জানায়নি যুক্তরাজ্য।

নিউজনাউ/এবি/২০২২

X