alo
ঢাকা, মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চীনকে টপকে রাশিয়ার জ্বালানির প্রধান ক্রেতা ভারত

প্রকাশিত: ০২ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৬:২৪ পিএম

চীনকে টপকে রাশিয়ার জ্বালানির প্রধান ক্রেতা ভারত
alo


নিউজনাউ ডেস্ক: রাশিয়ার তেলের বাজারে একসময় আধিপত্য বিস্তারকারী চীনকে পেছনে ফেলে গত মের পর থেকে এখন পর্যন্ত মস্কো থেকে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানি ৫০ গুণ বেড়েছে ভারতের। সম্প্রতি দেশটির ঊর্ধ্বতন এক সরকারি কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য দিয়েছে ইকোনমিক টাইমস। 

রাশিয়াকে পশ্চিমাদের নিষেধাজ্ঞার সুযোগকে কাজে লাগিয়েই কম দামে তেল কিনছে ভারত। রুশ তেলের দাম কমার পর চলতি মাসেই ভারতে সর্বোচ্চ সংখ্যক কার্গো যাচ্ছে, যা মাসিক চালানের প্রায় এক-পঞ্চমাংশ।

বৈশ্বিক কার্গো প্রবাহের পরিসংখ্যানকারী প্রতিষ্ঠান ভর্টেক্সা লিমিটেডের বিশ্লেষক এমা লি বলেন, 'ইএসপিও ক্রুড এখন ভারতে নিয়মিত রপ্তানি করা হচ্ছে। অথচ ভারত কিন্তু সবসময় এটা নিতে আগ্রহী ছিল না। যাত্রাপথ দীর্ঘ হলেও যতদিন দাম আকর্ষণীয় থাকবে এবং সত্যিকারের বাণিজ্য অবরোধ আরোপিত না হবে, ততদিন ভারতে এই তেলের প্রবাহ অব্যাহত থাকবে।'

তেলের তৃতীয় বৃহত্তম আমদানিকারক দেশটি প্রথমে উরাল ক্রুডের আমদানি বাড়ায় যা রাশিয়ার পশ্চিমাঞ্চল থেকে আসে। কিন্তু এখন ভারত ইএসপিও তেলের জন্যও চীনের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছে। ইএসপিও আসে রাশিয়ার পূর্বাঞ্চল থেকে। চীন প্রধানত এখান থেকেই তেল নিয়ে থাকে।

ভারত মধ্যপ্রাচ্য থেকে তেল কিনে থাকলেও ইএসপিও-র দাম মধ্যপ্রাচ্যের তেলের তুলনায় সস্তা। সম্ভবত সৌদি আরব ও আবু ধাবি থেকে ভারত আগে যে তেল কিনত তার অনেকটাই এখন রাশিয়ার থেকে নিবে ভারত।

এছাড়া চীনের সিনোপেক সম্প্রতি রাশিয়া থেকে তেল আমদানি কিছুটা কমানোয় ভারতীয় ক্রেতারা সেই সুযোগও লুফে নিচ্ছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

ইএসপিওর আগস্টের চালান জুলাইয়ের থেকে তাড়াতাড়ি যাচ্ছে। এর আগে পাঁচটি কার্গো ভাদিনার, সিক্কা, পারাদীপ ও মুন্দ্রা বন্দরে গিয়েছিল। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ইন্ডিয়ান অয়েল করপোরেশনসহ বেসরকারি রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এবং নায়ারা এনার্জি লিমিটেড এই টার্মিনালগুলোর কাছাকাছি পরিশোধন প্ল্যান্ট পরিচালনা করে।

নিউজনাউ/আরবি/২০২২

X