সারাদেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সশস্ত্র বাহিনীর কার্যক্রম

করোনাভাইরাসের থাবায় থমকে গেছে গোটা পৃথিবী। আক্রান্ত হাজার হাজার রোগী যোগ হচ্ছেন লাশের মিছিলে। মহামারীর এমন দৃশ্য কোনোদিন দেখেনি বিশ্ববাসী। ঠিক এমনই এক দুর্যোগপূর্ণ সময়ে গোটা বিশ্ব জুড়ে মহামারী আকার ধারণ করা  করোনা ভাইরাসের মাধ্যমে সংক্রমিত হওয়া প্রতিরোধে সেনাবাহিনীর কার্যক্রম। সারাদেশে প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর

নাটোর প্রতিনিধি :

নাটোরে সেনাবাহিনী করোনা ভাইরাস সচেতনয় প্রচারণা অব্যাহত রেখেছে। পাশাপাশি ভাইরাস প্রতিরোধে সদর হাসপাতাল সহ বিভিন্ন স্থানে জীবাণুনাশক স্প্রে করেছে সেনাবাহিনী।

শুক্রবার (২৭ মার্চ)  সকালে শহরের কান্দিভিটুয়া এলাকায় করোনা ভাইরাস সচেতনয় বিনা প্রয়োজনে সবাইকে ঘরে থাকার আহবান জানিয়ে মাইকিং করে শুরু করে সেনাবাহিনী। পরে সদর হাসপাতাল এলাকায় মাইকিং শেষে সদর হাসপাতালে  জীবাণুনাশক স্প্রে করেছে সেনা সদস্যরা।এছাড়া মসজিদ, যানবাহন সহ শহরের বিভিন্ন স্থানে জীবাণুনাশক স্প্রে করে সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর এ কার্যক্রমে অংশ নেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শাহরিয়াজ ও সিভিল সার্জন ডা: মিজানুর রহমান সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা।

বরিশাল প্রতিনিধি 

র্যাপিড একশন ব্যাটেলিয়ন (রাব-৮) নিজ  উদ্যোগে বরিশাল, ঝালকাঠি, পিরোজপুর ও ভোলা জেলার বিভিন্ন জায়গায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ)  সচেতনতা মূলক প্রচারের জন্য বিশেষ পেট্রোল টিম জনস্বার্থে এক কর্মসূচি পালন করে।

এ সময় জনসাধারণকে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বিভিন্ন করণীয় এবং বর্জনীয় বিষয় সমূহ সম্পর্কে সাধারণ পথচারীদেরকে অবহিত করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন ধরণের গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য সবাইকে সচেতন হতে আহবান করা হয়। ব্যক্তিগত এবং সামাজিক সচেতনতায় আমাদেরকে এ বিপর্যয় থেকে রক্ষা করতে পারে। এ সময় নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী ব্যতীত অন্যান্য দোকান/ হোটেল/ রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখা, অপ্রয়োজনে ঘড়ের বাহিরে অবস্থান না করা, বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠান বর্জন করা, সব সময় মাস্ক পরে বাহিরে অবস্থান করা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, ব্যক্তিগত পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করা ইত্যাদি বিষয়ের উপর গুরুত্তারোপ করে প্রচারণা করা হয়।

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে পুলিশ নানা সচেতনতা কার্যক্রম করেছে। শুক্রবার (২৭ মার্চ)    সকাল থেকেই জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকায় এই কার্যক্রম পরিচালনা করেন টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়।

সকালে শহরের পাঁচআনী বাজার, ছয়আনী বাজার, নিউ মার্কেটসহ বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে একটি টিম করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নানা কার্যক্রম পরিচালনা করে। এই সময় বাজার দর মনিটরিংসহ বাজারে আসা ক্রেতাদের নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করার জন্য দোকানদার ও ক্রেতাদের নির্দেশ দেন। ঔষধের দোকান ও কাঁচা বাজার গুলোতে নিদিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে গোল দাগ দিয়ে ক্রেতাদের দাঁড়ানোর জন্য মার্ক করে দেন এবং অযথা বাড়ির বাইরে কাউকে না আসার নির্দেশ দেন।

মাগুরা প্রতিনিধি :

মাগুরায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নিজের ইউনিয়নের সাধারণ নাগরিকদের রক্ষার্থে মাগুরার হাজরাপুর ইউনিয়ন জুড়ে ব্লিচিং পাউডার মিশ্রিত জীবাণুনাশক পানি ছিটালেন মাগুরা সদর থানার ৫ নং হাজরাপুর ইউনিয়নের  চেয়ারম্যান মোহাম্মদ কবির হোসেন।

দলের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) নিজ হাতে হাজরাপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে জীবাণুনাশক পানি ছিটিয়েছেন সফল এই চেয়ারম্যান।

এছাড়াও সাধ্য অনুযায়ী এলাকায় মাস্ক ও বিভিন্ন জীবাণুনাশক সরঞ্জাম সরবরাহেরও চেষ্টা করে যাচ্ছি। এলাকায় কোন বিদেশগামী লোকের অবস্থান নিশ্চিত হওয়া মাত্রই আমরা তাকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা ও নির্দেশনা দিচ্ছি। কোনভাবেই যাতে এলাকায় অসাধু ব্যবসায়ীরা দ্রব্যমূল্যে বৃদ্ধির মাধ্যমে সাধারণ অসহায় খেটে খাওয়া মানুষদের সমস্যার কারণ না হয় সেদিকেও লক্ষ্য রাখছি। তিনি সমাজের বিত্তবানদের সাধ্যানুযায়ী জাতীয় এই দুর্যোগপূর্ণ মুহূর্তে শ্রমজীবী ও খেটে খাওয়া মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

নিউজনাউ/এফএফ/২০২০

 

 

 

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...