সাবরিনার জালিয়াতির সহযোগী ড. মিজানুর রহমান!

নিউজনাউ ডেস্ক: গত কয়েকদিন ধরে সংবাদ মাধ্যম থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আলোচনায় , জেকেজির চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরীর এনআইডি কার্ড জালিয়াতি। সবার মনে প্রশ্ন, কিভাবে করলেন তিনি এই কাজ?

ইসির কর্মকর্তারাই জানালেন এর উত্তর। তারা বলছেন, মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমানের তদবিরে মিথ্যা তথ্য দিয়ে দ্বিতীয়বার জাতীয় পরিচয়পত্র করিয়ে নিয়েছেন সাবরিনা। যদিও বিষয়টি পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন ড. মিজান।

ইসির তথ্যভাণ্ডার বলছে, দ্বিতীয়বার ভোটার হওয়ার সময় সাবরিনার আবেদন পত্রে ছিল ড. মিজানুর রহমানের রেফারেন্স। এমনকি ড. মিজান নিজেই উপস্থিত হয়ে সাবরিনার জন্য তদবির করেন বলে জানিয়েছেন এনআইডির টেকনিক্যাল এক্সপার্ট।

এনআইডির টেকনিক্যাল এক্সপার্ট তাকে সাবরিনার সঙ্গে নির্বাচন কমিশনে দেখেছেন জানিয়ে ড. মিজানুর রহমানকে প্রশ্ন করা হলে তিনি দাবি করেন, কখনো নির্বাচন কমিশনেই যাননি তিনি। এমনকি চেনেনও না সাবরিনাকেও।

এনআইডি সার্ভারের সিকিউরিটি ফিচার অনুযায়ী, দ্বিতীয় ভোটার হতে আসলেই আঙুলের ছাপে ধরা পড়ে যায়। সেক্ষেত্রে প্রশ্ন দাঁড়িয়েছে, কমিশনের কোনো কর্মকর্তার যোগসাজশ ছাড়া আদৌ দ্বৈত ভোটার হওয়া সম্ভব কিনা। যদিও ইসির দুই দফা তদন্তে উঠে আসেনি কোনো কর্মকর্তার নাম। অধিকতর তদন্তের জন্য বুয়েট এবং কম্পিউটার কাউন্সিলের প্রতিনিধির সমন্বয়ে ৬ সদস্যের আরেকটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

নিউজনাউ/এমএএন/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...