দেশের বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতির আশঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

উজানে ভারতীয় এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস থাকায় দেশে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে আশঙ্কা করছে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডে। রোববার (১৯ জুলাই) পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, পানি উন্নয়ন বোর্ড এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আগামী ২০ বা ২১ জুলাই থেকে চারদিন ফের ভারতে আসাম, হিমালয় পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তর-পূর্ব ভারতে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। ফলে দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্ব ও মধ্যাঞ্চলে একইভাবে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া বলেন, পূর্বাভাস তথ্যমতে আগামী ২০ জুলাই থেকে ৪ দিন উজানে প্রায় ৮০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হতে পারে, যা দেশের নদ-নদীতে পানির চাপ বাড়াবে। তবে পানি বাড়লেও আগামী ২৬/২৭ জুলাই থেকে পদ্মার পানি অব্যাহতভাবে হ্রাস পাওয়া শুরু করতে পারে। জুলাই মাসের শেষ বা আগস্টের প্রথম সপ্তাহে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসতে পারে।

সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির উন্নতির আশা জানিয়ে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, পদ্মা নদীর পানি ইতোমধ্যে হ্রাস পাওয়া শুরু করেছে, ফলে আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে মধ্যাঞ্চলের জেলাগুলোতে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি আশা করছি। চলতি বন্যায় বন্যানিয়ন্ত্রণ বাঁধের বড় কোনো ভাঙন হয়নি। মন্ত্রণালয় এবং পানি উন্নয়ন বোর্ড স্থানীয় জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় যেকোনো জরুরি পরিস্থিতি তাৎক্ষণিকভাবে মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় সামগ্রী ও জনবল নিয়ে মাঠপর্যায়ে প্রস্তুত আছে।

উল্লেখ্য, জুলাই মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে ভারতের আসাম, পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তর-পূর্ব ভারতে চারদিনে প্রায় ৯০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়। ফলে দেশের উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে বন্যা সৃষ্টি হয় যা পদ্মা নদীর মাধ্যমে নামার সময় দেশের মধ্যাঞ্চলে অবস্থিত জেলাগুলোতে রাজবাড়ী, ঢাকা, মুন্সিগঞ্জ, ফরিদপুর, মাদারীপুর, শরীয়তপুর ও চাঁদপুর জেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি করে।

নিউজনাউ/ এম এইচ/ ২০২০

 

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...