ডিএসইতে ১৩ বছরে সর্বনিম্ন লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন একেবারে তলানিতে ঠেকেছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুন)  লেনদেন হয়েছে মাত্র ৪২ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। গত ১৩ বছরের মধ্যে এটি পুঁজিবাজারে সর্বনিম্ন আর্থিক লেনদেন। একদিনে এই পুঁজিবাজারে সর্বনিম্ন লেনদেনের রেকর্ড হয় ২০০৭ সালের ২৪ এপ্রিল। ওই দিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৪০ কোটি ৩৯ লাখ টাকার শেয়ার।

ডিএসইতে কেবল লেনদেনই কমেনি, সূচকেরও পতন হয়েছে। টানা ৬৬ দিন বন্ধ থাকার পর কেবল প্রথম কার্যদিবস রোববারেই সূচক ছিল ঊর্ধ্বমুখী। এরপর আজ বৃহস্পতিবার (০৪ জুন) পর্যন্ত টানা চতুর্থ দিনের মতো সূচকের পতনে শেষ হয়েছে ডিএসই’তে।

বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ৩০৯টি প্রতিষ্ঠানের ১৬ কোটি ৭৪ লাখ ৯ হাজার ১৬৭টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। লেনদেন হওয়া এসব শেয়ার ও ইউনিটের মধ্যে দাম বেড়েছে মাত্র ১১টির, কমেছে ৩৬টির। ২৬২টি শেয়ার ও ইউনিটের দাম অপরিবর্তিত ছিল। এদিন ডিএসই’র প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ১০ পয়েন্ট কমে ৩ হাজার ৯৫৩ পয়েন্টে নেমে আসে। এদিন ডিএসই’র শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৭ পয়েন্ট কমে যথাক্রমে ৯১৫ ও ১ হাজার ৩২১ পয়েন্টে নেমে আসে। এদিন ডিএসইতে মোট ৪২ কোটি ৯৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট কেনাবেচা হয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ২৩৭ পয়েন্টে। সিএসইতে আজ ১০৩টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৯টির দর বেড়েছে, কমেছে ১৯টির আর ৭৫টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে মাত্র ৪ কোটি ৫৯ লাভ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

নিউজনাউ/ এম এইচ/ ২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...