গণস্বাস্থ্যের অভিযোগ প্রত্যাখান করলো ওষুধ প্রশাসন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনাভাইরাস পরীক্ষার কিট অনুমোদনের জন্য গ্রহণ করেনি ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর- গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের এমন অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। বরোং প্রতিষ্ঠানটিকে সব ধরনের সহযোগিতা  করা হবে বলে জানানা হয়েছে।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে স্বাস্থ্য মিডিয়া সেল আয়োজিত কোভিড-১৯ পরীক্ষার কিট সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক নিজের এই বক্তব্য তুলে ধরেন।

এর আগে রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছিলেন, ‘ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর নানা অজুহাত দেখিয়ে গণস্বাস্থ্যের কিট গ্রহণ করেনি। আমরা জনগণের স্বার্থে শুধু সরকারের মাধ্যমে পরীক্ষা করে কিটটি কার্যকর কি না- তা দেখতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সরকারিভাবে প্রতি পদে পদে পায়ে শিকল দেয়ার চেষ্টা হয়েছে।’

এ বিষয়ে ওষুধ প্রশাসনের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘এখানে যদি অযাচিতভাবে অসত্য তথ্য উপস্থাপন করে মানুষকে তথা প্রতিষ্ঠানকে হেয়প্রতিপন্ন করার প্রচেষ্টা চালানো হয়, সেটি অত্যন্ত দুঃখজনক। এটি আমি প্রত্যাখ্যান করছি। আমি অনুরোধ করব এ ধরনের অপপ্রচার যাতে না চালানো হয়। তিনি একজন বয়োজ্যেষ্ঠ মানুষ। তার কাছ থেকে আরও বিজ্ঞানভিত্তিক, সৌজন্যমূলক দৃষ্টিভঙ্গি এবং কথাবার্তা আশা করব।’

এসময় ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের ডিজি বলেন, ‘২৬ এপ্রিল (রোববার) ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরে ওনাদের (গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র) একটি প্রতিনিধি দল আসে। আমি চাচ্ছিলাম, টোটাল প্রসেসটাকে ফ্যাসিলেটেড করতে, যেন তাড়াতাড়ি হয়। আইসিডিসিআরবির সিআরও (কন্ট্রাক্ট রিসার্চ অর্গানাইজেশন) আছে। আরও একটি প্রতিষ্ঠান ডেকেছিলাম ওনারা যদি সিআরওর মাধ্যমে করতে চান, যদি এদের মাধ্যমে হয়, তবে বিষয়টি ফ্যাসিলেটড হতে পারে।’

পরে সার্বিক বিষয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রকে সহায়তার আশ্বাস দিয়ে মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘ওনারা একটা টেস্ট ডেভেলপ করেছেন। আমাদের দিক থেকে, ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের দিক থেকে আমরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করার জন্য প্রস্তুত ছিলাম এবং এখনও আছি।’

নিউজনাউ/ এম এইচ/ ২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...