করোনা সন্দেহে মাকে হাসপাতাল গেটে ফেলে গেল সন্তান

নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনা আক্রান্ত সন্দেহে জন্মদাত্রী মাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গেটের সামনে তিনদিন আগে ফেলে গেছে এক সন্তান। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে খবর পেয়ে হাসপাতাল ক্যাম্পের পুলিশ তাকে ঢামেকের করোনা ইউনিটে ভর্তি করিয়েছে।

মনোয়ারা বেগম ওরফে মনিরা (৫০) নামে ওই নারীকে শনিবার (৬ জুন) বিকেল ৩টার দিকে সেখান থেকে উদ্ধার করে ঢামেকের করোনা ইউনিট-২ (নতুন ভবন) এর ৭০২ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

ওই নারীর স্বামীর নাম শাহজাহান মিয়া। গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার জয়রামপুরে। ছেলে মোজাম্মেল সরকারসহ পরিবারের সঙ্গে মিরপুর কমার্স কলেজের পাশের একটি বস্তিতে সালামের বাড়িতে থাকতেন তিনি।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী ইনচার্জ এএসআই আব্দুল খান বলেন, দুপুরে আমরা খবর পাই ওই নারী হাসপাতালের নতুন ভবনের সামনে পড়ে আছেন। তাকে তার ছেলে করোনা সন্দেহে এখানে ফেলে গেছে। পরে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। তখন তার ভীষণ শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল।

ওই নারীর বরাত দিয়ে আব্দুল খান বলেন, ‘কয়েকদিন থেকেই ওই নারীর শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। এজন্য তাদের বাড়িওয়ালা সালাম নারীর সন্তানদের বাড়ি থেকে অন্যত্র নিয়ে যেতে বলে। এরপর ছেলে মোজাম্মেল সরকার ও বাড়িওয়ালা সালাম তাকে দুদিন আগে ঢাকা মেডিকেলের নতুন ভবনের সামনে ফেলে রেখে যায়। এরপর আর কোনো খোঁজ নেননি। তবে সে তিনদিন ধরে এখানে ঝড়-বৃষ্টিতে ভিজে পড়ে আছে বলে জানিয়েছে আশপাশের অ্যাম্বুলেন্স চালকরা।’

আব্দুল খান কথা বলতে যেয়ে আবেগ্লাপুত হয়ে পড়েন। “মানবতা কোথায় গিয়ে ঠেকেছে? এমন ছেলেও পৃথিবীতে আছে। সন্তানদের জন্য ‘মা’ হচ্ছে শ্রেষ্ঠ সম্পদ। আর মাকে চিকিৎসা না দিয়ে ফেলে রেখে চলে যায়।”

নিউজনাউ/ এম এইচ/ ২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...