করোনার ভ্যাকসিন: সবার আগে বিনামূল্যে পাবে বাংলাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বিশ্বে করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার হলে, শুরুতেই বাংলাদেশ তা পাবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব এম এ মান্নান। এছাড়া করোনা ভ্যাকসিন বিনামূল্যে পাওয়ার আশা প্রকাশ করছেন তিনি।

সোমবার (২০ জুলাই) সকালে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক ভার্চুয়াল সভায় মো. আবদুল মান্নান এতথ্য জানান।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব বলেন, ‘যুক্তরাজ্য, চীনসহ অনেক দেশই করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। বিশ্বে করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার হলে সবার আগে তা বাংলাদেশে আসবে। এছাড়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নিয়ম  হলো, যেসব দেশের মানুষের মাথাপিঁছু আয় ৪ হাজার ডলারের নিচে, তারা ভ্যাকসিন বিনামূল্যে পাবে। যেহেতু বাংলাদেশের মানুষের মাথাপিঁছু আয় ২ হাজার মার্কিন ডলারের কাছাকাছি, সে হিসেবে ফ্রি (বিনামূল্যে) পাবো।’

আবদুল মান্নান বলেন, ‘ভ্যাকসিন দেশে এলে দেশের অন্তত ৮০ শতাংশ মানুষকে ক্রমান্বয়ে বিতরণের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। একই সঙ্গে ভ্যাকসিন আনার প্রক্রিয়া ও বিতরণের জন্যও সরকার যথার্থ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।’

করোনা পরীক্ষার কিটের বিষয়ে স্বাস্থ্যসচিব বলেন, ‘সরকারের কাছে তিন লাখ কিট মজুত আছে। এরপরও কিট আমদানি কার্যক্রমও অব্যাহত রয়েছে। প্রতিদিন ১০ হাজার করে পরীক্ষা করতে থাকলে মজুত কিট দিয়েই আরও অন্তত এক মাস চালানো যাবে। এর মধ্যে নিশ্চয়ই আরও কিছু কিট আমরা আমদানি করতে সক্ষম হব। সুতরাং দেশে করোনা পরীক্ষায় কোনো সংকট নেই। নিশ্চয়ই করোনা পরীক্ষা বৃদ্ধিতে আরও উদ্যোগ নেয়া হবে।’

স্বাস্থ্যখাতের অরাজক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দ্রুত টাস্কফোর্স গঠন এবং স্বাস্থ্যখাতে যে ইমেজ সংকট তৈরি  হয়েছে সেটা দূর করা হবে বলেও জানান স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব।

অনলাইন সভায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) শেখ মুজিবর রহমানসহ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সভার কার্যক্রম সঞ্চালনের দায়িত্বে ছিলেন জাতীয় টেকনিক্যাল পরামর্শক কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ।

নিউজনাউ/ এম এইচ/ ২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...