ডিসেম্বরেই আসছে ফাইজারের ভ্যাকসিন!

নিউজনাউ ডেস্ক: আগামী পঁচিশ ডিসেম্বরের আগে অর্থাৎ বড় দিনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন বাজারে আসতে পারে।

বৃহস্পতিবার সকালে ফাইজারের সহযোগী সংস্থা বায়োএনটেকের কর্ণধার উগুর সাহিন আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, সবকিছু ঠিক মতই এগোচ্ছে। আশা করছি ডিসেম্বরের শুরুতেই আমরা করোনা টিকা উৎপাদনের ছাড়পত্র পাবো। ক্রিসমাসের আগেই বাজারে আনতে পারবো।

এমআরএনএ প্রযুক্তির সাহায্যে জার্মান সংস্থা বায়োএনটেক’র সঙ্গে যৌথভাবে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তৈরি করেছে ফাইজার। বুধবার ফাইজার কর্তৃপক্ষ জানায়, মানবদেহে তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষায় ৯৫ শতাংশ সাফল্য পেয়েছে তাদের করোনা টিকা।

উগুর বলেন, আমাদের তৈরি টিকায় কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ধরা পড়েনি। বয়স এবং অবস্থান ভেদে টিকার কার্যকারিতার কোনও তারতম্য হয়নি। এদিকে করোনার টিকার জরুরি ব্যবহারের জন্য শুক্রবার অনুমতি চাওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন উগুর। তিনি বলেন, এজন্য যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) কাছে প্রয়োজনীয় কাগজ জমা দেবেন তারা।

এর আগে ফাইজার কর্তৃপক্ষ বুধবার জানিয়েছিল, হিউম্যান ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের তৃতীয় পর্যায়ের চূড়ান্ত ফলাফল বিশ্লেষণের রিপোর্ট যুক্তরাষ্ট্রের ফুড ড্রাগ অ্যান্ড সেফটি অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের কাছে পেশ করে টিকা উৎপাদনের অনুমতি চাওয়া হবে।

বিশ্বের ৬টি দেশের প্রায় ৫০ হাজার স্বেচ্ছাসেবকের উপর ফাইজার-বায়োএনটেক করোনা টিকার পরীক্ষা হয়েছে। সম্প্রতি একটি রিপোর্টে বলা হয়, কয়েকটি ক্ষেত্রে টিকার প্রথম ডোজ প্রয়োগের পরই মাথাব্যথা, জ্বর, পেশিতে যন্ত্রণাসহ একাধিক উপসর্গ দেখা গেছে। আর এই টিকার কার্যকারিতা কতদিন থাকবে তা এখনও স্পষ্ট নয়।

নিউজনাউ/এনএইচএস/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...