৩০ সেপ্টেম্বর: ইতিহাসের এই দিনে

সময় গড়ায় তার নিজস্ব নিয়মে, নিজস্ব গতিতে। ধীরে ধীরে তৈরি হয় ইতিহাস, সমৃদ্ধ হয় মানবসভ্যতা। বিভিন্ন ঘটনা-দুর্ঘটনা, মনীষী কিংবা সাধারণের জন্ম-মৃত্যু দিয়ে গড়ে ওঠে ইতিহাস, উন্মোচিত হয় জগতের নতুন নতুন দিগন্ত। বছরের পর বছর পিছনে ফিরে তাকালে ঠিক আজকের এইদিনে এমন অনেক ঘটনা, অনেক আলোচিত সমালোচিত ব্যক্তির জন্ম-মৃত্যু জানতে পারি আমরা। ইতিহাসের দিকে চোখ বুলাতে দেখে নেবো এইদিনটিতে উল্লেখযোগ্য কি কি ঘটেছিল এই বিশ্বব্রক্ষ্মাণ্ডে। আজ ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০। জেনে নিই ইতিহাসের এইদিনে বিশিষ্টজনদের জন্ম-মৃত্যু, দিনসহ ঘটে যাওয়া ঘটনা।

ঘটনাবলী

১৬৬৭ – আওরঙ্গজেব-এর সাম্রাজ্যে সংযোজিত হয় গোলকুণ্ডা।

১৮৬০ – ব্রিটেনে প্রথম ট্রাম চালু হয়।

১৮৮২ – প্রথম থমাস এডিসনের উদ্ভাবিত হাইড্রো-ইলেকট্রিক পাওয়ার প্লান্ট চালু হয়।

১৯২২ – বেনিতো মুসোলিনি ইতালিতে প্রথম ফ্যাসিবাদী সরকার গঠন করেন।

১৯২৮ – পেনিসিলিনের আবিষ্কারের কথা প্রথম ঘোষিত হয়।

১৯২৯ – বিবিসি প্রথম পরীক্ষামূলক টিভি সম্প্রচার শুরু করে।

১৯৩৮ – জার্মানিতে ঐতিহাসিক মিউনিখ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

১৯৩৯ – পোল্যান্ডের বিভক্তি স্বীকার করে জার্মানি ও সোভিয়েত ইউনিয়ন একটি চুক্তিতে উপনীত হয়।

১৯৩৯ – ব্রিটেনে পরিচয়পত্র প্রথা চালু হয়।

১৯৩৯ – পোল্যাণ্ডের বিভাজন নিয়ে জার্মানি ও রাশিয়া সহমত পোষণ করে।

১৯৪৭ – পাকিস্তান ও ইয়েমেন জাতিসংঘে যোগদান করে।

১৯৬৬ – বোতসোয়ানা ব্রিটিশ উপনিবেশের কবল থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীনতা অর্জন করে এবং এ দিনটিকে তারা জাতীয় দিবস হিসেবে উদযাপন করে।

১৯৯২ – বাংলাদেশে কার্ড ফোন ব্যবস্থা চালু হয়।

১৯৯৩ – ভারতের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য মহারাষ্ট্রে প্রচণ্ড ভূমিকম্পে ২০ হাজারেরও বেশি লোকের প্রাণহানি ঘটে।

এইদিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন যারা

১২০৭ – জালালুদ্দিন রুমি, পারস্যের কবি ছিলেন তিনি।

১৪৪৪ – ডোনাটো ব্রামান্তে, তিনি ছিলেন ইতালির প্রখ্যাত স্থাপত্য শিল্পী।

১৭০০ – স্টানিস্লাও কনারস্কি, তিনি ছিলেন পোলিশ সন্ন্যাসী, কবি ও নাট্যকার।
১৮৭০ – জঁ-বাতিস্ত পেরাঁ, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ফরাসি বংশোদ্ভূত আমেরিকান পদার্থবিদ।

১৯০৫ – নেভিল ফ্রান্সিস মট, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ পদার্থবিদ।

১৯২৮ – এলি ওয়িইয়েসেল, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী রোমানিয়ান বংশোদ্ভূত আমেরিকান লেখক, অধ্যাপক ও সমাজ কর্মী।

১৯৩১ – জ্যাঁ মারি লেঁ, তিনি ছিলেন নোবেলজয়ী ফরাসি রসায়নবিদ।

১৯৩৩ – অজিতেশ বন্দোপাধ্যায়, তিনি বাঙালি নাট্যকার ও অভিনেতা।
১৯৩৯ – জাঁ মারি লেহন, তিনি নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ফরাসি রসায়নবিদ।

১৯৪৩ – যোহান ডেইসেনহফের, তিনি নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান প্রাণরসায়নী।

১৯৪৪ – আবুল কাসেম ফজলুল হক, তিনি বাংলাদেশের প্রখ্যাত প্রাবন্ধিক ও রাষ্ট্রচিন্তাবিদ।
১৯৫১ – ব্যারি মার্শাল, তিনি নোবেল পুরস্কার বিজয়ী অস্ট্রেলিয়ান চিকিত্সক।

১৯৬২ – প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, তিনি একজন বাঙালি চিত্রাভিনেতা।

১৯৭২ – শান্তনু মুখার্জী শান, তিনি একজন খ্যাতিমান ভারতীয় গায়ক।

১৯৮৫ – টি-পেইন, আমেরিকান রাপার, প্রযোজক ও অভিনেতা।

মৃত্যু হয়েছিল যাদের 

১৮৭৫ – শিক্ষাবিদ প্যারীচরণ সরকার, তিনি ছিলেন একজন শিক্ষাবিদ, সমাজসংস্কারক ও উনিশ শতকের বাঙলার পাঠ্যপুস্তক রচয়িতা।

১৯৪৩ – রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের, তিনি ছিলেন ব্রিটিশ ভারতীয় শিক্ষাবিদ ও সাংবাদিক।

১৯৫৩ – আবদুল করিম, তিনি ছিলেন সাহিত্য বিশারদ উপাধিতে ভূষিত পুঁথি সংগ্রাহক ও লেখক।

১৯৫৫ – জেমস ডিন, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেতা।

১৯৮৫ – সিমন সিগ্নরেট, তিনি ছিলেন জার্মান বংশোদ্ভূত ফরাসি অভিনেত্রী।

১৯৯০ – প্যাট্রিক হোয়াইট, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ বংশোদ্ভূত অস্ট্রেলিয়ান লেখক।

১৯৯৮ – রবার্ট লুইস টেলর, তিনি ছিলেন আমেরিকান লেখক।

২০০৪ – মাইকেল রেলফ, তিনি ছিলেন ইংরেজ পরিচালক, প্রযোজক ও চিত্রনাট্যকার।

২০১৩ – রাম্বলিন ‘টমি স্কট’, তিনি ছিলেন আমেরিকান গায়ক ও গিটার।

নিউজনাউ/এসএইচ/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...