আধিপত্য বিস্তারের মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১২ জন কারাগারে

ফরিদপুর ব্যুরো: ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে একপক্ষের ওপর হামলার ঘটনায় মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ তার ১১ জন সমর্থককে কারাগারে প্রেরণ করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন জেলা আদালতের অতিরিক্ত মূখ্য বিচারকের দায়িত্বরত মুখ্য হাকিম আব্দুর হামিদ।

কারাগারে যাওয়া ওই নেতা এসএম ফারুক হোসেন বোয়ালমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক ও উপজেলার ঘোষপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। ওই সাথে ফারুকের সহযোগী এবং ওই মামলার আরও ১১ জন আসামিকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৮ জুন সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ঘোষপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের চন্ডিবিলা গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ইউপি চেয়ারম্যানের সমর্থকরা তার প্রতিপক্ষ আসাদ মোল্লার বাড়িসহ লোকজনের ওপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় আসাদ মোল্যা ও তার ভাই আকরাম মোল্যাসহ ১৫ জন আহত হন। এ হামলায় আসাদ মোল্যা, আকরাম মোল্যা এবং তাদের দলের সমর্থক রাজা মাতুব্বর বর্তমানে পঙ্গুত্ব জীবন যাপন করছেন

এ ঘটনায় আসাদ মোল্লা বাদি হয়ে মারামারি ও প্রাণনাশের চেষ্টার অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান ফারুকসহ ১৬৩ জনকে আসামি করে বোয়ালমারী থানায় মামলা দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বিবাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম জানান, ঘোষপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফারুকসহ ১২ জন পূর্বে নিম্ন আদালত থেকে জামিন নিয়েছিলেন। জামিনের শর্ত অনুযায়ী তাদের চার্জ গঠন পর্যন্ত এর মেয়াদকাল থাকবে বলে সে সময় বলা হয়েছিল। সম্প্রতি এ মামলার চার্জ গঠন করা হয় এবং মামলাটি অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক আদালতে স্থানান্তর করা হয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার এ মামলার নির্ধারিত তারিখ ছিল। এ মামলায় চেয়ারম্যান ফারুকসহ তার ১১ সমর্থক হাজির হয়ে জামিনের আবেদন জানান। এ সময় আদালত জামিনের আবেদন নাকচ করে ইউপি চেয়ারম্যান ফারুকসহ ১২ জনকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।
নিউজনাউ/এনএইচএস/২০২০

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
এছাড়া, আরও পড়ুনঃ
Loading...