Banner Before Header

জেদ্দায় স্কুলকে দুই কোটি টাকা অনুদান

এম ওয়াই আলাউদ্দিন, মধ্যপ্রাচ্য ব্যুরো : অর্থনৈতিক মন্দা, সৌদি নাগরিকদের জন্য চাকরি সুবিধার লক্ষে সৌদি সরকার ঘোষণা করেন ভিশন-২০৩০। বাস্তবায়নে শুরু করেন নানা পদক্ষেপ প্রবাসীদের পরিচয়পত্র নবায়ন ফি, প্রবাসী পরিবার গুলোর উপর বিশেষ কর আরোপ করার কারণে এরইমধ্যে অনেক বাংলাদেশি তাদের পরিবারকে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়ার কারণে বিপাকে পড়ে বাংলাদেশিদের পরিচালিত স্কুল /কলেজগুলো, ছাত্র/ছাত্রী সংকটের কারণে বন্ধ হয়ে গেছে অনেক প্রতিষ্ঠান, এরিমধ্যে দূতাবাস / কনস্যুলেটের অধীনে পরিচালিত স্কুলগুলোর পাশে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ সরকার। বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ জেদ্দা (ইংরেজী শাখা)-কে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ‘ওয়েজ অর্নার্স কল্যাণ বোর্ড’ কর্তৃক প্রদত্ত দুই কোটি টাকা অনুদানের চেক হস্তান্তর করা হয়েছে।জেদ্দা কনস্যুলেট জেদ্দায় বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল (ইংরেজি শাখা)’র অনুকূলে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ‘ওয়েজ অর্নার্স কল্যাণ বোর্ড’ কর্তৃক প্রদত্ত ০২ (দুই) কোটি টাকার ঋণের চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠিত হয়। এই টাকা বিনা সুদ এবং যেই কোন সময় পরিশোদ করতে পারবেন পরিশোদ করার ব্যাপারে কোন সময় উল্লেখ করা হয় না কনসাল জেনারেল এফ. এফ. বোরহান উদ্দিন প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে স্বাগত বক্তব্য পেশ করেন। বক্তব্য শেষে স্কুলের এসএমসি’র চেয়ারম্যান/স্কুলের অধ্যক্ষ সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ্’র নিকট হতে ঋণের চেক গ্রহণ করেন এবং স্কুলের এসএমসি’র চেয়ারম্যান তার অনুভূতি প্রকাশ করেন। সবশেষে রাষ্ট্রদূত উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে সমাপনী বক্তব্য রাখেন। এসময় রাষ্ট্রদূত, স্কুল সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ, স্বচ্ছভাবে চালানোর জন্য পরিচালনা পরিষদকে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার পরামর্শ দেন। এই টাকার ব্যয় স্বচ্ছ থাকতে হবে। পরিচালনা পর্ষদের পাশাপাশি স্কুলের অভিভাবকদেরকেও এদিকে নজর রাখতে হবে। প্রতিমাসে স্কুলের আয়-ব্যয়ের হিসাব অভিভাবকদের কাছে উপস্থাপনের জন্য পরিচালনা পর্ষদের প্রতি আহবান জানান তিনি।
প্রাইভেট টিউশনি বন্ধের নির্দেশ দিয়ে রাষ্ট্রদূত বলেন, যেকোন মুল্যে বাসায় বাসায় টিউশনি বন্ধ করতে হবে এটা একদিকে যেমন ছাত্র/ছাত্রীদের ক্ষতি করছে অন্যদিকে এটা সম্পুর্ণ অবৈধ ও বেআইনি।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিদেশের স্কুলগুলোর ব্যাপারে সবসময়ই আন্তরিক আর সেই আন্তরিকতার কারণেই স্কুলকে বাঁচাতে সৌদি আরবে ৯টি বাংলাদেশি স্কুলের উন্নয়নকল্পে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ের ওয়েজ আনার্স কল্যাণ বোর্ড থেকে বিনা সুদে দীর্ঘ মেয়াদে ১০ কোটি টাকার অনুদান প্রদান করেছেন। স্কুলে একটি আধুনিক কম্পিউটার ল্যাব স্থাপনে প্রধানমন্ত্রী শিগগির আরেকটি অনুদান দিবেন।
কনসাল কে এম সালাহউদ্দিন এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানের কনসাল জেনারেল এফ এম বোরহান উদ্দিন এর সভাপতিত্বে চেক হস্তান্তরের সময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, শ্রম কাউন্সেলর মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, কাউন্সেলর আলতাফ হোসেন, কাউন্সেলর মুজিবুর রহমান, প্রথম সচিব, মুহাম্মদ কামরুজ্জামান, ভাইস কনসাল মোস্তফা জামিল খান, কনস্যুলেটের কর্মকর্তা/কর্মচারি, স্কুল পরিচালনা পরিষদের সদস্যবৃন্দ- অধ্যক্ষ, জেদ্দায় বসবাসরত বিভিন্ন স্তরের প্রবাসী বাংলাদেশি এবং প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিরা। কনস্যুলেটের কর্মকর্তা/কর্মচারি, জেদ্দায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.