Banner Before Header

নিরাপত্তার জন্য যা জানা দরকারি

ক্রেডিট কার্ডের তথ্য, পাসওয়ার্ড বা গুরুত্বপূর্ণ যেকোনো তথ্য যাতে অসাবধানতায় অন্য কারও হাতে না পড়ে, সে জন্য তার নিরাপত্তা খুবই জরুরি। তৃতীয় পক্ষের (থার্ড পার্টি) অনেক সফটওয়্যার দিয়েই তথ্য গোপন রাখার কাজটি সারা যায়। তবে উইন্ডোজের কমান্ড প্রম্পট ব্যবহার করে খুব সহজেই তথ্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যাবে।
যা করতে হবে
শুরুতেই যে তথ্যগুলো লুকাতে চান, সেটি একটি নোটপ্যাড টেক্সট ফাইল বা ওয়ার্ড ডকুমেন্টে লিখে রাখুন। এবার Win Key + R চেপে রান চালু করুন। এখানে cmd লিখে এন্টার করে কমান্ড প্রম্পট চালু করুন। কমান্ড লাইনে F: লিখে এন্টার করুন। F-এর পরিবর্তে যেকোনো ড্রাইভের নাম লিখে সেখানেও ফাইলটি রাখতে পারেন। পরের কমান্ডে notepad newsnow.txt:frdsmn.txt লিখে এন্টার করুন। এখানে লক্ষণীয়, ‘notepad’ লেখার পরের অংশে যে নামে ফাইলটি রাখতে চান, সেটি লিখতে হবে এবং কোলন (:) চিহ্নের পরের অংশে ফাইলের গোপন নাম লিখতে হবে। এখানে গোপন নাম দিয়েই পরবর্তী সময়ে সেই ফাইল খুলতে হবে। তাই সতর্কতার সঙ্গে ফাইলের নাম দুটি লিখুন। লেখা শেষে এন্টার বোতাম চাপলেই ‘Cannot find the…Do you want to create a new file?’ বার্তা দিয়ে জানাবে যে ওই নামের ফাইল কম্পিউটার খুঁজে পাচ্ছে না। এই নামে ফাইল খুলতে ইয়েস বোতাম চেপে আগের তৈরি করা ওয়ার্ড ফাইলের তথ্যগুলো এখানে লিখে বা পেস্ট করে CTRL+S চেপে নোটপ্যাডের ফাইলটি সেভ করে নিন। কমান্ড প্রম্পট উইন্ডোজ বন্ধ করে তৈরি ফাইলটি দেখতে চাইলে যে ড্রাইভে ফাইলটি রেখেছিলেন সেখানে যান। এবার তৈরি করা ফাইলে (newsnow.txt) দুই ক্লিক করে খুললেই দেখবেন এখানে কোনো তথ্য দেখাচ্ছে না। ফাইলের তথ্যগুলো আবার দেখতে চাইলে আগের নিয়ম অনুসরণ করে কমান্ড প্রম্পট চালু করে নিন। যে ড্রাইভে (F:) এর আগে ফাইলটি সংরক্ষণ করেছিলেন, সেটি লিখে এন্টার করুন। তথ্য গোপনের জন্য এর আগে যে কমান্ডটি লিখেছিলেন, হুবহু সেটি আবার লিখে এন্টার চাপলেই সংরক্ষণকৃত তথ্যগুলো আবার দেখা যাবে। এভাবে পরের কোনো ফাইলের তথ্য গোপন করতে চাইলে আগের নিয়ম মেনে শুধু কমান্ড লাইনের গোপন নামটি (frdsmn.txt) বদলে দিয়ে পরের ধাপগুলো ঠিক ঠিক অনুসরণ করতে হবে।
রাকিবুল হাসান

Leave A Reply

Your email address will not be published.