Banner Before Header

গ্রাহকের সঙ্গে প্রতারণা: সারাদেশে ৭২ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

গ্রাহকের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে সারাদেশের ৭২টি প্রতিষ্ঠানকে সাত লাখ ২২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।অধিদপ্তরের ২৫ জন কর্মকর্তা সোমবার ঢাকাসহ দেশের ২১ জেলায় একযোগে এই অভিযান পরিচালনা করেন। স্থানীয় পুলিশ ও ভোক্তা অধিকার সংস্থা কনজ্যুমার্স অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশের (ক্যাব) সদস্যরা অভিযানে সহায়তা করেন।

ডিএনসিআরপির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নকল পণ্য উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিপণনের দায়ে গুলশান এলাকায় চারটি দোকানকে ৫০ হাজার টাকা করে মোট দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

ঢাকার গুলশান ও লালবাগ এলাকায় ডিএনসিআরপির অভিযানের তত্ত্বাবধানে ছিলেন ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার, সহকারী পরিচালক রজবী নাহার রজনী ও সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদাউস ।

ডিএনসিআরপির ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক রজবী নাহার রজনী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, গুলশান শুটিং ক্লাবের উল্টো পাশে কোল্ড স্টোন মেয়াদোত্তীর্ণ ও এমআরপি (সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য) ট্যাগ ছাড়া বিভিন্ন পণ্য বিক্রি করছিল। এ কারণে তাদের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
এছাড়া নকল পণ্য বিক্রির দায়ে রুবেল এন্টারপ্রাইজ, নিতি ফুড ট্রেডিং ও মেসার্স উজ্জ্বল স্টোরকে ৫০ হাজার টাকা করে মোট দেড় লাখ টাকা জরিমানা করে ডিএনসিআরপি।

একই ধরনের অপরাধে হারফি রেস্তোরাঁকে ২৫ হাজার টাকা, মিষ্টির দোকান রসকে ৩০ হাজার টাকা, গেলাব স্টোরকে ১০ হাজার হাজার টাকা, অনিলা সুইটসকে ১৫ হাজার টাকা, আলাউদ্দিন ট্রেডকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গুলশান নাভানা টাওয়ারের অধিকাংশ দোকান আমদানি করা পণ্য বিক্রি করে। অভিযানে দেখা যায়, অনেক পণ্যের গায়ে কোনো আমদানি ট্যাগ বা এমআরপি সিল নেই। অনেক সময় মেয়াদও উল্লেখ থাকে না পণ্যের গায়ে। ডিএনসিআরপির প্রতিনিধি দল তাদেরকে জরিমানা করার পাশাপাশি সতর্ক করেছে।

এদিন রাজধানী ছাড়াও ঝালকাঠি, রাজশাহী, মানিকগঞ্জ, কুষ্টিয়া, নোয়াখালী, পাবনা, চট্টগ্রাম, মাগুরা, চুয়াডাঙ্গা, বরিশাল, কুড়িগ্রাম, নওগাঁ, গোপালগঞ্জ, ভোলা, খুলনা, ফরিদপুর, গাইবান্ধা, হবিগঞ্জ ও নেত্রকোণায় বাজার তদারকি করেছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা।

এসব জেলায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য পণ্য তৈরি, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকা, মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য বা ওষুধ বিক্রি, প্রতিশ্রুত পণ্য বা সেবা যথাযথভাবে বিক্রি বা সরবরাহ না করা, ওজনে কারচুপি, খাদ্যে নিষিদ্ধ উপাদানের মিশ্রণ, পণ্যের মূল্যের তালিকা প্রদর্শন না করার মত অপরাধে ৬১টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ৩ লাখ ৭১ হাজার ৮০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.