Banner Before Header

প্রোপাগান্ডায় কান দিবেন না: আদ্রিয়েন পূলিয়

বাংলাদেশী প্রার্থী রনীর সংবাদ সন্মেলনে কুইবেক কনজারভেটিভ পার্টি প্রধান আদ্রিয়েন পূলিয়।

কুইবেক কনজারভেটিভ পার্টির বিরুদ্ধে বিভিন্ন মহলের প্রচারকৃত প্রোপাগান্ডা না শোনার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানিয়েছেন দলটির প্রধান নেতা আদ্রিয়েন পূলিয়।

কুইবেক কনজারভেটিভ পার্টি থেকে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে মনোনয়ন পাওয়া তানভীর ইউসুফ রনী’র নির্বাচনী এলাকা লরিয়ের ডরিয়ন এ আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে আদ্রিয়েন পূলিয় এসব কথা বলেন।

এসময় বাংলাদেশ, এশিয়া এবং আফ্রিকান মিডিয়ার সাংবাদিকরা সহ স্থানীয় ফরাসি সংবাদপত্রের সাংবাদিকরাও উপস্থিত ছিলেন।

আদ্রিয়েন বলেন, বিরোধী শিবিরের অনেকেই ফেডারেল কনজারভেটিভের সাথে প্রাদেশিক কনজারভেটিভকে একত্র করে ভূল তথ্য প্রচার করছে যা সত্যিই দুঃখজনক। তাছাড়া দলটির এই দুই অংশের প্লাটফর্মও সম্পূর্ন ভিন্ন।

ইমিগ্রেশন সংক্রান্ত বিষয়ে তিনি বলেন, ‘কুইবেক কনজারভেটিভ পার্টির অবস্থান এব্যাপারে সম্পূর্ন পরিস্কার, যা আমাদের ওয়েবসাইটেও দেয়া আছে। আমরা  ইমিগ্র্যান্টদের শুধু আমন্ত্রনই না, তাঁদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থাও নিশ্চিত করবো’।

ভাষাগত সমস্যার ব্যাপারে তিনি বলেন, কনজারভেটিভ কুইবেক ক্ষমতায় গেলে এই প্রদেশকে বাইল্যাঙ্গুয়াল করা হবে, প্রত্যেকটা উচ্চ বিদ্যালয়ে ইংরেজি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হবে, সেই সাথে বহুমাত্রিক সংস্কৃতির অবস্থানও পাকা পোক্ত করা হবে।

তিনি বলেন, বয়স্কভাতা কিংবা ওয়েলফেয়ারের ব্যাপারেও মিথ্যা রটানো হচ্ছে! ওয়েলফেয়ার সম্পুর্ন ফেডারেলের ব্যাপার।

ট্যাক্স সংক্রান্ত বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা ক্ষমতায় গেলে ‘রেভিনিউ কুইবেক’ বিলুপ্ত করা হবে যাতে ছোট ব্যাবসায়ীরা এবং মধ্যম আয়ের নাগরিকরা ট্যাক্সের বঞ্চনা থেকে মুক্তি পেতে পারে।

কুইবেকের শিক্ষা ব্যাবস্থার ব্যাপারে তিনি বলেন, কুইবেক কনজারভেটিভ পার্টি ক্ষমতায় গেলে অভিভাবকদের হাতে সকল ক্ষমতা দেয়া হবে যা এখন স্কুল বোর্ড দ্বারা পরিচালিত হয়।

তিনি আরও জানান, এবারের প্রাদেশিক নির্বাচনে কুইবেক কনজারভেটিভ পার্টি থেকে ১২৫ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে এবং প্রার্থীদের মধ্যে বহুমাত্রিক পরিবর্তনও লক্ষিত হবে।

গুরুত্বপূর্ন এই সংবাদ সন্মেলনটির আয়োজক ছিলেন, দলের লরিয়ের ডরিয়ন থেকে নির্বাচনী প্রার্থী তানভীর ইউসুফ রনী এবং পরিচালনায় ছিলেন দলটির সেন্ট হেনরির নির্বাচনী প্রার্থী ক্যারোলিন অর্চার্ড।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আর্জেন্টুইল নির্বাচনী এলাকার প্রার্থী শেরউইন এডওয়ার্ড।

সংবাদ সন্মেলন থেকে উপস্থিত সকল সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানানো হয়।

উল্লেখ্য, কুইবেক কনজারভেটিভ পার্টি থেকে এবারই প্রথম কোন বাংলাদেশীকে এম এন এ পদের জন্য মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.