Banner Before Header

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশিদের ঈদ মেলা

অস্ট্রেলিয়া অফিসঃ

ঈদের আমেজ শুরু হয়েছে অস্ট্রেলিয়ায়। শুরু হয়েছে ঈদ শপিং। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সিডনির লাকেম্বাতে আয়োজন করা হয়েছিলো ‘লাকেম্বা ঈদ মেলা ২০১৮’। আয়োজন করেছিল প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংগঠন ত্রিমাত্রা। ছেলে-মেয়ে, ছোট-বড় সকলের উপস্থিতিতে মুখরিত হয়ে উঠেছিলো মেলা প্রাঙ্গণ।

মেয়েদের সালোয়ার কামিজ,শাড়ি, ছেলেদের বাহারি রঙ্গের পাঞ্জাবি, বাচ্চাদের বিভিন্ন পোশাকের স্টল এবং জুয়েলারি ও প্রসাধানির স্টলে উপচে পড়া ভিড় ছিলো চোখে পড়ার মতো। অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের সকল ধরনের পোশাক পেয়ে আনন্দিত মেলায় আসা প্রবাসীরা।

শাহিন আক্তার স্বর্ণা, শিরিন আক্তার মুন্নি এবং তাম্মি পারভেজ- চার বছর আগে ৩ নারী উদ্যোক্তার উদ্যোগে শুরু হয়েছিলো সিডনিতে ঈদ মেলা, বর্তমানে যা ঈদের সবচেয়ে বড় মেলাতে পরিণত হয়েছে। প্রবাসীদের কেনাকাটা এবং ব্যবসা ভালো হওয়াতে খুবই আনন্দিত স্টলের মালিকেরা।

শাহিন আক্তার স্বর্ণা বলেন, আজ থেকে চার বছর আগে চিন্তা করছিলাম আমাদের কিছু করা দরকার, বিশেষ করে যারা বাসায় কাজ করছে। ইচ্ছে ছিল মেয়েদের জন্য একটা প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা। সেই চিন্তা থেকে আমরা ৩জন এক হয়ে এই ঈদ মেলার আয়োজন করে আসছি।

তাম্মি পারভেজ বলেন, এই আয়োজনের মাধ্যমে আমরা প্রমাণ করতে পেরেছি মেয়েরা ইচ্ছে করলে সব কিছু করতে পারে।

শিরিন আক্তার মুন্নির ভাষ্য, আমরা মেয়েদের এগিয়ে নিয়ে যেতে চেয়েছি। সেই লক্ষ্য থেকেই এই মেলার আয়োজন।

মেলাতে স্টল নিয়েছেন সামিয়া ইসলাম। বিক্রয় করছেন মেয়েদের পোশাক। বিক্রিও বেশ ভালো বলে জানালেন তিনি। এই স্টলের পাশাপাশি সিডনির লিভারপুলে নিজের একটি দোকান আছে বলে জানান সামিয়া। তিনি বলেন, আগে দেশি পোশাক আমাদের দেশ থেকে আনতে হতো অথবা অনলাইনে অর্ডার দিয়ে নিতে হতো। তখন অনেক সমস্যায় পড়তে হতো। এই সমস্যা দূর করতে নিজেই দেশি পোশাকে দোকান শুরু করি।

মেলায় বান্ধবীদের সাথে ঘুরতে এসে চারটি শাড়ি কিনেছেন ইলোরা পারভিন। জানালেন তার অনুভূতি, ‘ঈদকে সামনে নিয়ে এমন মেলার আয়োজন করায় আমাদের অনেক ভালো হয়েছে। আমরা সিডনিতে থেকেই বাংলাদেশি শাড়ি, সালোয়ার কামিজ, পাঞ্জাবি সব পাচ্ছি।’

সিডনিতে এই প্রথম কোনো রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে ‘রামাদান ফেস্টিভাল’ পালন করা হচ্ছে

Leave A Reply

Your email address will not be published.