Banner Before Header

বাজেটে শিশুদের জন্য বরাদ্দ বেড়েছে

হাসান আল বান্না : প্রস্তাবিত বাজেটে সরকারের সামাজিক সুরক্ষা বলয় কর্মসূচীতে শিশুদের জন্য বরাদ্দ বাড়ানোকে ইতিবাচকভাবে দেখছে সেভ দ্য চিলড্রেন। তবে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতের বরাদ্দ যথেষ্ট নয় বলে মনে করা হচ্ছে।

আজ ঢাকার গুলশানে নিজেদের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে শিশু বাজেট নিয়ে সেভ দ্য চিলড্রেনের পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন চাইল্ড রাইটস গভর্ন্যান্স অ্যান্ড চাইল্ড প্রোটেকশন সেক্টরের ডেপুটি ডিরেক্টর, গভর্ন্যান্স অ্যান্ড পাবলিক ফাইন্যান্স, আশিক ইকবাল। এতে উপস্থিত ছিলেন সেভ দ্য চিলড্রেনের চাইল্ড রাইটস গভর্ন্যান্স অ্যান্ড চাইল্ড প্রোটেকশন সেক্টরের পরিচালক লায়লা খন্দকার ও প্রোগ্রাম ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড কোয়ালিটি বিভাগের পরিচালক রিফাত বিন সাত্তার এবং অন্যান্য কর্মীবৃন্দ।

শিশু বাজেটের অন্তর্ভুক্ত ১৫টি মন্ত্রণালয়ে এবার শিশুদের জন্য ৬৫,৬৫০ কোটি টাকার বরাদ্দ রাখা হয়েছে যা জাতীয় বাজেটের ১৪.১ শতাংশ (জিডিপির ২.৬ শতাংশ)। গত বছরের তুলনায় সরকারের সামাজিক সুরক্ষা বলয় কার্যক্রমে বরাদ্দ সমগ্র বাজেটের অংশ হিসেবে কমেছে। তবে শিশু সংশ্লিষ্ট সামাজিক সুরক্ষা বলয়ে বরাদ্দ বেড়েছে ২০.২ শতাংশ। বিশেষ করে এ খাতে প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য ২৩০.৩ শতাংশ অর্থ বরাদ্দ বাড়ানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। স্কুল ফিডিং কার্যক্রম বাড়ানোর ফলে শিশুদের ঝরে পড়ার হার কমবে এবং তাদের পুষ্টির চাহিদা নিশ্চিত করায় অগ্রগতি হবে বলে মনে করে সেভ দ্য চিলড্রেন।

এসব প্রশংসনীয় উদ্যোগের পাশাপাশি শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে মোট অর্থ বরাদ্দ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে সেভ দ্য চিলড্রেন। শিক্ষাখাতে বাজেট বেড়েছে মাত্র ৫.২ শতাংশ এবং স্বাস্থ্যখাতে ১৩.২ শতাংশ। আবার সমগ্র বাজেটের অংশ হিসেবে এই দুটি গুরুত্বপূর্ণ খাতেই বরাদ্দ কমেছে, যা টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহায়ক হবেনা বলে মনে করে সেভ দ্য চিলড্রেন। শিশু সহিংসতা বন্ধে শিশু সুরক্ষা ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করার তেমন কোনো উদ্যোগও নজরে পড়েনি।

সামাজিক সুরক্ষা বলয় কর্মসূচীতে শিশুদের জন্য বরাদ্দ বাড়ানোসহ বেশ কিছু ইতিবাচক পদক্ষেপ লক্ষণীয় হলেও শিশুদের সার্বিক জীবনমান উন্নয়নে আরও উদ্যোগী হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করে সেভ দ্য চিলড্রেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.